স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ এক হলে কী হয়?

blood_group

স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ এক হলে কোনো সমস্যা হয়? রক্তের গ্রুপ এক হলে নাকি বাচ্চার জন্মগত সমস্যা হয়? প্রায় প্রতিদিন এমন প্রশ্নের মুখোমুখী হতে হয় চিকিৎসকদের। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে জি নিউজ জানিয়েছে, স্বামী-স্ত্রীর রক্তর গ্রুপ একই হলে কোনো সমস্যা হয় না। কিন্তু যদি স্ত্রীর নেগেটিভ রক্তের গ্রুপ থাকে এবং স্বামীর পজিটিভ গ্রুপ থাকে। তাহলে সমস্যা হয়ে থাকে। যাকে Rh Isoimmunization বলে। সেটারও সহজ চিকিৎসা বা টিকা আছে। অনেকের ভ্রান্ত ধারণা- বাবা মায়ের রক্তের গ্রুপ এক হলে বাচ্চার থ্যালাসেমিয়া হয়। এটাও সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। কারণ, থ্যালাসেমিয়া রোগ ক্রোমোজোম এবনরমালিটি থেকে হয়। বিশ্বে…

Read More

সেলিম ওসমানের প্রশংসায় হেফাজত [ভিডিওসহ]

Hefajath junayed

নারায়ণগঞ্জে শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে কান ধরে উঠবস করানোর ঘটনায় স্থানীয় সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের প্রশংসা করেছে হেফাজতে ইসলাম। একইসঙ্গে ওই স্কুলশিক্ষকের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। শুক্রবার বিকাল তিনটার দিকে সংগঠনটির ফেসবুক পেজে আপলোড করা ৬ মিনিট ৩৫ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে এমন প্রশংসা করেছে হেফাজতের কেন্দ্রীয় মহাসচিব হাফেজ মুহাম্মদ জুনায়েদ বাবুনগরী। ভিডিওবার্তায় জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, গত কয়েকদিন আগে নারায়ণগঞ্জে ছাত্রদের হট্টগোল থামানোর জন্য প্রধান শিক্ষক বলেছেন, তোমরাও নাপাক, তোমাদের আল্লাহও নাপাক। সেই মাস্টার আল্লাহকে কটাক্ষ করেছেন। নারায়ণগঞ্জের জনগণ উত্তেজিত হয়ে তার ওপর (শিক্ষক) হামলা করার প্রস্তুতি নিয়েছে, তখন সেই এলাকার…

Read More

ওবামাকে চাকরির প্রস্তাব

Obama

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার দায়িত্ব ছাড়তে এখনও ২৪৮ দিন বাকি আছে। এর মধ্যেই সংযুক্ত আরব আমিরাতের এক আইনজীবী ওবামাকে তার আইনি প্রতিষ্ঠানে চাকরির প্রস্তাব দিয়েছেন। আইনজীবীর দাবি, ওবামা দুবাইভিত্তিক তার এ প্রতিষ্ঠানে চাকরি করলে ইসলামের সহিষ্ণুতা সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে পারবেন। সোমবার টুইটারে আমিরাতের আইনজীবী আইসা বিন হায়দার চাকরির এ প্রস্তাব দিয়েছেন। তিনি উল্লেখ করেন, ইসলামের সহিষ্ণুতার বিষয়ে জানতে ও বুঝতে ওবামাকে চাকরির এ প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব শেষে ওবামা চাকরিতে যোগ দিতে পারেন। আরেকটি টুইটে ওবামাকে উদ্দেশ করে হায়দার বলেন, প্রেসিডেন্ট ওবামা আমি আপনাকে একটা চাকরির প্রস্তাব দিচ্ছি…

Read More

‘নিজামীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর বাংলাদেশের বিরাট ভুল’

নিজামীর ফাঁসি কার্যকর

জামায়াতে ইসলামীর আমীর মতিউর রহমান নিজামীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করাটাকে তুরস্ক যে বাংলাদেশের ‘বিরাট এক ভুল’ বলেই মনে করে, তা স্পষ্ট করে জানিয়ে দিলেন তাদের এক শীর্ষস্থানীয় কূটনীতিক। ভারতের দিল্লিতে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত ড. বুরাক আকচাপার বলেছেন, এই ফাঁসি কার্যকর করায় তারা যে ক্ষুব্ধ, সেটা প্রকাশ করাটা তুরস্কের অধিকারের মধ্যেই পড়ে এবং তুরস্ক নিজামীকে কোনো যুদ্ধাপরাধী নয়, বরং একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবেই দেখছে। নিজামীর ফাঁসি কার্যকর করার প্রতিবাদে তুরস্ক ইতিমধ্যে ঢাকা থেকে তাদের রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে। তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান তীব্র ভাষায় এ ফাঁসির নিন্দা করেছেন। বাংলাদেশে ১৯৭১-এ সংঘটিত যুদ্ধাপরাধের জন্য…

Read More

মোসাদ-বিএনপির মধ্যস্থতাকারী কে?

Aslam+BNP-Leader-755-422

সংখ্যালঘুদের নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা করতে বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরী ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সহায়তা চেয়েছিলেন। সংখ্যালঘু নির্যাতনের তথ্য-প্রমাণ দেখিয়ে মেন্দি এন সাফাদিকে বাংলাদেশ সরকারের বিরুদ্ধে উত্তেজিত করার চেষ্টা চালানো হয়। তাকে বোঝানো হয়, বাংলাদেশে বর্তমান সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে আছে। এই সরকারকে ক্ষমতা থেকে নামাতে হলে বিদেশী সহায়তা প্রয়োজন। কে বা কার মাধ্যমে মোসাদের সঙ্গে আসলামের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তা জানার চেষ্টা করছে গোয়েন্দারা। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। মামলাটি তদন্ত করছেন এমন এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বুধবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। গত রোববার…

Read More

ঋণের নামে ব্যাংকে চলছে লুটপাট

Bangladesh Bank logo

ঋণের নামে ব্যাংকিং খাতে লুটপাট চলছে। একটি চক্র ঋণ নিয়ে আর ফেরত দিচ্ছে না। এ কারণে খেলাপি ঋণ দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। আর খেলাপি ঋণ বেড়ে যাওয়ায় একদিকে ভালো উদ্যোক্তারা ঋণ পাচ্ছেন না, অপরদিকে বিনিয়োগের অন্যতম শর্ত সুদের হারও কমানো যাচ্ছে না। ফলে বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থান বাড়ছে না। এভাবে চলতে থাকলে দেশের সার্বিক অর্থনীতি মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। দেশের শীর্ষস্থানীয় অর্থনীতিবিদ, সাবেক ব্যাংকার এবং দুর্নীতিবিরোধী সংস্থার কর্মকর্তারা এসব কথা বলেছেন। অর্থনীতিবিদরা বলেন, এভাবে চলতে থাকলে একসময় ব্যাংক দেউলিয়া হয়ে যাবে। তাদের মতে, ব্যাংকে পরিচালকদের নিজস্ব কোনো তহবিল নেই। যে টাকা…

Read More

ওয়ার্নারের সঙ্গে মুস্তাফিজের কান্না [ভিডিওসহ]

mustafij_add

মুস্তাফিজ যে হয়দারাবাদের সাফল্যের চাবিকাঠি আগেই তা প্রমানিত হয়েছে। কিন্তু তিনি যে দলের আনন্দ বিনোদনেরও মধ্যমনি। কিন্তু টিভিতে দেখা গেল ওয়ার্নার, মরগান এবং উইলিয়ামসনের সঙ্গে বসে কাঁদছেন। তবে তা কেবলই অভিনয়ের খাতিরে। ভারতের একটি বিজ্ঞাপনে দেখা গিয়েছে এই কাটার মাস্টারকে। ডেস্ক টু ডেস্ক কুরিয়ার অ্যান্ড কার্গো (ডিটিডিসি) নামক একটি অনলাইন ডেলিভারির বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছেন মুস্তাফিজ, যুবরাজ, ওয়ার্নাররা। ৫৯ সেকেন্ডের এই বিজ্ঞাপনে দেখা যাচ্ছে- টেলিভিশন সেটের সামনে বসে কাঁদছেন মুস্তাফিজ, ওয়ার্নার, মরগান এবং উইলিয়ামসন। যুবরাজ এসে তাদের জানান, ম্যাচ শুরুর আর মাত্র ১২ ঘণ্টা বাকি আছে। ব্যাটের কিট খুলতে গিয়ে ওয়ার্নার…

Read More

টিভি অনুষ্ঠানে ঢুকে ৪ তরুণীর নগ্নবক্ষ প্রদর্শন [ভিডিওসহ]

tariq_ramadan_femen_attack_women_

একটি ইসলামিক আলোচনা অনুষ্ঠান চলাকালে খ্যাতিমান ইসলামিক দার্শনিক তারিক রামাদানকে হেনস্তা করেছেন চারজন অর্ধনগ্ন নারী। রোববার ফ্রান্সের বরগেট শহরে ওই অনুষ্ঠান চলাকালে প্রকাশ্যে এমন কাণ্ড ঘটায় ‘ফিমেন’ নামের একটি কট্টরপন্থী নারীবাদী সংগঠনের এই চার কর্মী। ইসলামী পোশাক পরেই ওই নারীরা অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করে। আলোচনার এক পর্যায়ে তারা জিন্সের ওপর পরিধান করা বোরকা খুলে নগ্নবক্ষে তারিক রামাদানের দিকে তেড়ে যান। ওই বোরকা তার মাথায় জড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করেন তাদের একজন। ঘটনার আকস্মিকতায় কিছুটা অপ্রস্তুত হয়ে পড়েন তারিক রামাদান। পরে আয়োজক সংগঠনের লোকজন ওই চার নারীবাদীকে সেখান থেকে সরিয়ে নেন। এ সময়…

Read More

জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতির কারণে ক্যান্সারে মারা যাবে ৫লাখ নারী

ক্যান্সার থামাতে নতুন উপায় উদ্ভাবন করেছেন বিজ্ঞানীরা

মহিলাদের জন্য রীতিমতো আতংকের খবর। ক্যান্সারের ‘স্বর্গরাজ্য’ হয়ে উঠেছে ভারত! আর ওই দেশে ক্যান্সারের বড় ‘শিকার’ হচ্ছেন মহিলারাই! পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, এ দেশে আর ৯ বছর পর, ২০২৫ সালের মধ্যে কম করে ৫ লক্ষ নারী মারা যেতে পারেন ক্যান্সারে। আক্রান্তের সংখ্যাটা হতে পারে তার অন্তত ৪/৫ গুণ। এই ভয়াবহ ছবিটা উঠে এসেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অফ হেল্থ অ্যান্ড হিউম্যান সার্ভিসেস (ইউএসডিএইচএইচএস)-এর অধীনস্থ ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের (এনসিআই) হালের একটি সমীক্ষায়। আরও একটি ভয়াবহ ছবি উঠে এসেছে ওই সমীক্ষা থেকে। সেটি হল- ভারতে গ্রামের মহিলাদের চেয়ে ক্যান্সারে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন শহর ও শহর-লাগোয়া মফস্বলগুলোর…

Read More

ঢাকা কলেজের শিক্ষকের কান্ড!

Dhaka collage teacher

সোহেল হাসান গালিব (ডানে) ঢাকা কলেজের শিক্ষক। এ ছবি পহেলা বৈশাখের। টেবিলে রাখা মদের বোতলটি কলেজেরই দুই ছাত্রকে দিয়ে কিনিয়ে আনা। এ নিয়ে নিজের ফেসবুক ওয়ালে ক্ষুব্ধ স্ট্যাটাস দিয়েছেন কবি আবু হাসান শাহরিয়ার। আমাদের সময়ের সাবেক সম্পাদক তার ফেসবুক ওয়ালে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ফাহিমা খাতুনের উদ্দেশে লেখেন- ‘‘অসামাজিক কার্যকলাপ ও ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করার অভিযোগে এই লম্পট শিক্ষক ইতঃপূর্বে একটি সরকারি মহিলা কলেজ থেকে বিতাড়িত হয়েছিল। পরিতাপের বিষয় এই যে, মিথ্যা অপবাদে শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে কান ধরে ওঠ-বস করতে হয় এই দেশে, সোহেল হাসান গালিবের মতো কুলাঙ্গাররা পুনঃপুনঃ অন্যায় করেও…

Read More