অপহৃত কিশোরীকে হাত-পা বেঁধে গণধর্ষণ করলো বখাটেরা

Rape logo 1
Share Button

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে এক কিশোরীকে (১৪) অপহরণ করে হাত-পা ও মুখ বেঁধে গণধর্ষণ করেছে কয়েকজন বখাটে।

ঘটনার দুদিন পর কিশোরীকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ৫নং বানাইল ইউনিয়নের ভুসুণ্ডি সানাইদারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর থেকেই বখাটেরা এলাকা থেকে সটকে পড়েছে বরে জানা গেছে।

গণধর্ষনের শিকার কিশোরীর দিনমজুর বাবা বুধবার বলেন, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পাইকপাড়া গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের বখাটে ছেলে আমিনুরসহ (২২) কয়েকজন তার মেয়েকে তুলে নিয়ে যায়। এ সময় তিনি ও তার স্ত্রী বাড়ি ছিলেন না।

তিনি বলেন, তার মেয়েকে দুর্বৃত্তরা পার্শ্ববর্তী পাইকপাড়া গ্রামের তোফাজ্জলের বাড়িতে আটকে রাখে। সেখানে কয়েকজন মিলে হাত-পা ও মুখ বেঁধে গণধর্ষণ শেষে বুধবার দুপুরে পার্শ্ববর্তী একটি পাট ক্ষেতে ফেলে যায়।

রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় আলামিন নামে এক বালক কিশোরীকে দেখে লোকজনকে খবর দেয়।

স্থানীয় লোকজন এসে কিশোরীকে উদ্ধার করে তার বাবার সহযোগিতায় মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করেছে। তার অবস্থা আশংকাজনক বলে হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে।

কিশোরীর বাবা বখাটে আমিনুরকে প্রধান আসামি করে অজ্ঞাত আরও ৪-৫ জনের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ওসি মো. মাইন উদ্দিন বলেন, ওই কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এ ধরনের একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts