অস্ত্রের মুখে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

Rape logo 1

পিরোজপুর মঠবাড়িয়ার দশম শ্রেণীর স্কুলছাত্রীকে (১৫) অস্ত্রের মুখে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে আটকে ধর্ষণ করেছে রুবেল তালুকদার (২৫) নামের বখাটে যুবক।

বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। পরে রাতে এলাকাবাসী ধর্ষক রুবেলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

ধর্ষক রুবেল তালুকদার উপজেলার ধানীসাফার উদয়তারা বুড়িরচর গ্রামের ফারুক তালুকদারের ছেলে। আর ধর্ষিতা মঠবাড়িয়ার তুষখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মঠবাড়িয়ার উদয়তারা বুড়িরচর গ্রামের ওই স্কুলছাত্রী বৃহস্পতিবার সকালে প্রাইভেট পড়ে উপজেলার সীমান্তবর্তী ভাণ্ডারিয়ার ইকোপার্ক হয়ে বাড়ি ফিরছিল।

পথে বখাটে রুবেল হরিণপালা গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে উজ্জলের সহযোগিতায় ধারালো অস্ত্রের মুখে তাকে তুলে নেয়।

এরপর স্কুলছাত্রীকে উজ্জলের বাড়িতে আটকে রেখে দিনভর ধর্ষণ করে রুবেল। এ সময় উজ্জলের বাবা মা বাড়িতে ছিলেন না।

পরে এলাকাবাসী বিষয়টি টের পেয়ে রুবেলকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়।

ভাণ্ডারিয়া থানার ওসি মো. কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে রুবেল ও উজ্জলকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।

গ্রেফতারের পর রুবেলকে শুক্রবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আর স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পিরোজপুর জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts