কুষ্টিয়ায় চিকিৎসক খুন, গুরুতর জখম ইবি শিক্ষক

kustia
Share Button

এবার কুষ্টিয়ায় এক হোমিওপ্যাথ চিকিৎসককে কুপিয়ে খুন করল দুর্বৃত্তরা। এ সময় তার সঙ্গে থাকা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের এক শিক্ষক এবং ওই চিকিৎসকের সহোদরকেও কুপিয়ে জখম করে তারা।

সকালে মোটরসাইকেলে করে কুষ্টিয়া শহরতলীর বটতৈল থেকে কুষ্টিয়া শহরে যাচ্ছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. সাইফুজ্জামান, চিকি‍ৎসক ছানাউল্লাহ (৫৭) ও তার ভাই আনিসুর রহমান।

পথিমধ্যে একদল দুর্বৃত্ত তাদের পথরোধ করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ওই চিকিৎসকের মৃত্যু হয়। গুরুতর জখম হন ওই চিকিৎসকের ভাই আনিসুর রহমান ও শিক্ষক সাইফুজ্জামান। শিক্ষক সাইফুজ্জামানের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

শুক্রবার (২০ মে) সকালে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বটতৈল ইউনিয়নের শিশিরমাঠ সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত ছানাউল্লাহ কুষ্টিয়া শহরের পুর্ব মজমপুর এলাকার মৃত মীর বজলুর রহমানের ছেলে।

কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালের চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, ইবি শিক্ষক সাইফুজ্জামানের জন্য চার সদস্যের মেডিকেল টিম করা হয়েছে। তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে।

এদিকে, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ইবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল হাকিম সরকার। এ সময় তিনি বলেন, সাইফুজ্জামানের জন্য ইবি প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাবুদ্দিন চৌধুরী বাংলামেইলকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, নিহতের মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে কারা কেন এই হামলা চালিয়েছে, সে বিষয়েও তিনি কোনো ধারণা দিতে পারেননি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts