পাবনায় দুই ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে ভিডিও ইন্টারনেটে

বান্ধবীর ধর্ষণ সরাসরি সম্প্রচার করলো কিশোরী!
Share Button

পাবনার সুজানগরে দুই স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে প্রকাশ করায় আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। রোববার বিকেলে পাবনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ইমরান হোসেন চৌধূরী মামলাটি গ্রহণ করে আসামিদের গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলর আইনজীবী রাজিউল্লাহ সরদার রঞ্জু জানান, সুজানগর পৌর এলাকার চর ভবানীপুর গ্রামের অষ্টম শ্রেণির দুই ছাত্রী ১ আগস্ট বিকেলে স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে চর ভবনীপুর মাস্টার পাড়ার হযরত আলী, আল আমিন, শাহিন, মিঠুন, পাংকু ও সোহেল রানা নামের ছয় বখাটে যুবক অস্ত্রের মুখে ওই দুই স্কুলছাত্রীকে জোরপূর্বক পার্শ্ববর্তী নিকিরী পাড়ার একটি বাশ বাগানে নিয়ে যায়।

সখানে বখাটেরা জোরপূর্বক পালাক্রমে দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে এবং মোবাইলে তার ভিডিও ধারণ করে। ঘটনা কাউকে জানানো হলে ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকী দেওয়া হয়। পরে দুই ছাত্রী বিষয়টি ভয়ে গোপন রাখে। ঘটনার কয়েক দিন পর ভিডিও চিত্র দেখিয়ে পুনরায় তাদের সঙ্গে যাওয়ার প্রস্তাব দিলে তারা তা প্রত্যাখান করে।

এরপর বখাটেরা ওই ভিডিও চিত্রটি ফেসবুকে আপলোড করলে মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে ভিডিওটি। বিষয়টি জানাজানি হলে ওই দুই ছাত্রীর অভিভাবকরা থানায় বখাটেদের বিরুদ্ধে মামলা করতে গেলে মামলা গ্রহণ না করে তাদের ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

তবে সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবায়দুল হক বলেন, এ ধরনের কোনো অভিযোগ কেউ আমাদের কাছে নিয়ে আসেনি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করতাম।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts