বঙ্গবন্ধু বিমানবন্দর হচ্ছে মাদারীপুরে

বিমানবন্দর
Share Button

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের জন্য মাদারীপুরে দুইটি স্থান ঠিক করা হয়েছে। এর মধ্যে শিবচর উপজেলার চরজানাজাতকে প্রাধান্য দিয়ে বিমান মন্ত্রণালয়কে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে জাপানি সংস্থা নিপ্পন কোয়ি।

চূড়ান্ত তালিকার দুইটি জায়গাই মাদারীপুরের হওয়ায় খুশি সেখানকার এলাকাবাসী। পদ্মাসেতুর মত বিমানবন্দর নির্মাণের জন্যও জমি দিতে প্রস্তুত এলাকাবাসী । তবে তারা জমির নায্যমূল্য পাওয়া নিয়ে শংকিত তারা। সূত্র: একাত্তর টিভি

প্রায় তিন বছর আগে একটি জনসভায় চরজানাজাতে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের জন্য ৫ হাজার মানুষ গণ-স্বাক্ষর দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করে। এর সম্ভাবতা যাচাই করতে গত বছর জাপানি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান নিপ্পন কোয়ি কোম্পানি লিমিটেডকে কার্যাদেশ দেয় সরকার। এরপর গত এক বছর ধরে সমীক্ষা চালানোর পর গত অক্টোবর মাসের শেষ দিকে একটি প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়। কিন্তু কোন খাতে কত টাকা ব্যয় হবে সেটা উল্লেখ ছিল না।
স্থানীয় এক ইউপি সদস্য জানান, ৮ হাজার একর জমি নিয়ে অত্যাধুনিক এই বিমানবন্দর নির্মাণ বর্তমান সরকারে একটি নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি। যার নির্মাণ কাজ ২০১৯ সালের মধ্যে শুরু করার কথা রয়েছে।
সিভিল এভিয়েশন বলছেন, বিমানবন্দরটি নির্মাণ হলে এতে প্রতি ২৪ ঘন্টায় ৪০০ যাত্রীবাহী ফ্লাইট ও ২০০ কার্গো ফ্লাইট অপারেশন করা যাবে। আর প্রতিবছর কমপক্ষে ১ কোটি ২০ লাখ যাত্রী চেকিং ও চেক আউট সম্ভব হবে।


 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts