বরিশালে বাড়ির সামনে থেকে তুলে নিয়ে ১২ দিন ধর্ষণ

Rape logo 1
Share Button

বরিশালের গৌরনদীতে দশম শ্রেণির ছাত্রীকে (১৫) বাড়ির সামনে থেকে তুলে নিয়ে ১২দিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করেছে।

ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ধর্ষিতাকে শুক্রবার দুপুরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

পরে ওই স্কুলছাত্রীকে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেয়ার জন্য বরিশাল অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গৌরনদী মডেল থানার এসআই মো. নজরুল ইসলাম জানান, ওই ছাত্রী ৫ নভেম্বর বিকালে বাড়ির সামনের রাস্তায় ঘুরতে বের হয়।

এ সময় একই গ্রামের শাহ আলম ডাক্তারের ছেলে আবুল হোসেন ডাক্তার ও তার তিন সহযোগী মিলে ছাত্রীর গতিরোধ করে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এরপর তাকে বিভিন্ন স্থানে আটকে রেখে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে।

এ ব্যাপারে ধর্ষিতার বাবা বাদি হয়ে অপহরণকারী আবুল হোসেন ডাক্তারের নাম উল্লেখ করে চারজনকে আসামি করে ১১ নভেম্বর সকালে গৌরনদী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই নজরুল সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার উত্তর পালরদী গ্রামে অভিযান চালিয়ে একটি বাড়ি থেকে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করেন।

ধর্ষক আবুল হোসেন ডাক্তারসহ আসামিদের গ্রেফতারে জোর প্রচেষ্টা চলছে বলে জানান এসআই নজরুল।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts