বাগেরহাটে পুরোহিত ও হিন্দু অধ্যক্ষকে হত্যার হুমকি

বাগেরহাটে পুরোহিত ও অধ্যক্ষকে হত্যার হুমকি

বাগেরহাট যদুনাথ মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ অজয় কুমার চক্রবর্ত্তীকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়েছে এক পুরোহিতকে। তিন সন্ত্রাসী মটরসাইকেলে এসে ওই পুরোহিতকে হত্যা করার জন্য খুঁজে গেছে। শনিবার বিকেলে বাগেরহাট সদর মডেল থানায় অভিযোগ দিয়েছেন অধ্যক্ষ অজয় কুমার।

বাগেরহাট যদুনাথ স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ অজয় কুমার চক্রবর্ত্তী জানান, শুক্রবার রাত ২টা ১৫ মিনিটে ০১৭৪৪৭৫০১২৫ নম্বর মোবাইল থেকে ফোন করে তাকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করা হয়। শনিবার সন্ধ্যার মধ্যে তাকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেয়া হয়।

বিষয়টি তিনি বাগেরহাটের পুলিশ সুপারকে আবহিত করেন এবং থানায় নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

পুলিশ সুপার নিজামুল হক মোল্যা জানান, বিষয়টি জানতে পেরে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ তৎপর হয়ে ওঠে। মোবাইল নম্বরটি ট্রাকিং করে দেখা গেছে ওই কলটি গাইবান্ধা থেকে করা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

এদিকে, কচুয়া উপজেলার সাংদিয়া গ্রামের উত্তম গোসাই নামে এক পুরোহিতকে একই রাতে অশ্রাব্য গালাগালি দিয়ে হুমমি দেয়া হয়। উত্তম গোসাই জানান, গভীর রাতে তাকে মোবাইল ফোনে গালাগালির পর পূঁজা-অর্চনা বন্ধ করতে বলা হয়। না হলে তাকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেয়।

আবার একই গ্রামের রবিন চক্রবর্ত্তী ওরফে রবিন ঠাকুর নামে এক পুরোহিতকে তিন যুবক মিলে রাতে খুঁজতে তার বাড়ি যায়। এসময় তিনি বাড়িতে ছিলেন না। রবিন ঠকুর জানান, তিনি বাড়িতে না থাকার সময় মটরসাইকেলে করে তিন যুবক তার বাড়ি যায়। তারা দরকার আছে বলে তাকে খুঁজতে থাকে। এঘটনা জানার পর কচুয়া পুলিশ টহল জোরদারের পাশাপাশি ওই এলাকায় নজরদারী বৃদ্ধিতে স্বেচ্ছাসেবক দল গঠন করেছে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts