বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে কিশোরী, অতপর…

meherpur

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকা প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেয়ার খবরে উপজেলা প্রশাসন গিয়েও সমস্যার সমাধান করতে পারেনি প্রেমিকা নাবালিকা হওয়ার কারণে।

শেষে প্রেমিকার ঠাঁয় হয়েছে ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা মেম্বারের বাড়িতে।

তবে বিয়ে না হলে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলার হুমকি দিয়েছে প্রেমিকা। তবে প্রেমিকার উপস্থিতিতে প্রেমিক বাড়ি ছেলে পালিয়েছে।

গাংনী উপজেলার মহব্বতপুর গ্রামের এক মেয়ের (১৫) সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে একই উপজেলার চেংগাড়া গ্রামের মহব্বত আলীর ছেলে আরিফুল ইসলামের (১৭) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

শারীরিক সম্পর্কও চলে তাদের মধ্যে। মেয়েটি জানান, বিয়ের প্রলোভন দিয়ে অনেকদিন থেকে আরিফুল তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করে।

কয়েকদিন ধরে সে বিয়ে করতে অস্বীকার করছে। বাধ্য হয়ে সে বিয়ের দাবিতে বুধবার বিকালে আরিফুলের বাড়িতে হাজির হয়। তার উপস্থিতির পর আরিফুল পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ উজ জামান ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাহাত মান্নান।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts