ভটভটি চালক ও সবজি বিক্রেতাকে পেটালেন মদ্যপ মেয়র

rajshahi

মদ্যপ অবস্থায় এক ভটভটি চালক এবং এক সবজি বিক্রেতাকে পিটিয়ে আহত করেছেন রাজশাহীর আড়ানী পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুক্তার আলী।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মেয়রের নিজ বাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- ভটভটি চালক আব্দুল আওয়াল (২৭) ও সবজি বিক্রেতা লেলিন (২৫)। তারা দু’জনই পৌর এলাকার গোচর মহল্লার বাসিন্দা।

স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে রাতেই আহত লেলিনকে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করে এবং আহত ভটভটি চালক আওয়ালকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়াল জানান, রাতে ঘটনার সময় আমার ভটভটিতে চড়ে সবজি বিক্রেতা আড়ানীর সাহাপুর সড়ক ধরে ইশ্বরদী যাচ্ছিলেন সবজি কিনতে। এসময় মোটরসাইকেলযোগে পেছন থেকে আসা আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলী সাইড দেয়ার জন্য হর্ণ দেন। কিন্ত সামনে একটি কুকুর শুয়ে থাকায় মেয়রকে সাইড দিতে দেরি হয়। এতে ক্ষেপে যান মেয়র।

অভিযোগে আরো জানা গেছে, মেয়র মুক্তার ভটভটিকে অতিক্রম করে যাওয়ার পর তার বাড়ির সামনের রাস্তায় অপেক্ষা করছিলেন। ভটভটি নিয়ে আওয়াল ও লেলিন ঘটনাস্থলে পৌঁছালে তাদের থামিয়ে প্রথমে আওয়ালকে নামিয়ে কিল ঘুষি, চড় থাপ্পড় দিতে থাকেন। এসময় লেলিন গিয়ে হাতজোড় করলে তাকেও কিল ঘুষি ও লাথি দিতে থাকে এলোপাথাড়ি। এতে লেলিন ও আওয়াল আহত হয়।

শেষে লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে দু’জনকে মেয়রের হাত থেকে উদ্ধার করেন।

স্থানীয়রা জানান, মুক্তার আলী পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। মেয়র হওয়ার পর থেকে দেশি মদে তার আসক্তি আরো বেড়ে যায়। যে কোনো অনুষ্ঠানে যোগদানের আগে মদ্যপান করেন। এতে প্রায় অনুষ্ঠানে অপ্রীতিকর ঘটনার জন্ম দেন এই নেতা।

রাতে মেয়র মুক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করে ভটভটি চালক আওয়াল ও সবজি বিক্রেতা লেলিনকে মারধরের বিষয়টি জানতে চাইলে মুক্তার ক্ষেপে উঠেন। এক পর্যায়ে ফোন কেটে দেন।

এলাকাবাসী জানান, মেয়র নির্বাচিত হয়ে মুক্তার স্থানীয় একটি মসজিদের জমি দখল করে নিজের চেম্বার বানাতে গেলে এলাকাবাসী স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের কাছে তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment