ময়মনসিংহের নান্দাইলে মাদ্রাসার ছাত্রীকে গণধর্ষণ

Rape logo 1
Share Button

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার বেতাগৈর ইউনিয়নের চরশ্রীরামপুর গ্রামে ৫ম শ্রেণীতে পড়–য়া এক মাদ্রাসার ছাত্রীকে ৬ যুবক মিলে রাতভর গণধর্ষনের এক গুরুতর অভিযোগ রোববার (১২ই জুন) পাওয়া গেছে। গণধর্ষনের শিকার কিশোরী (১৪) রোববার নান্দাইল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতাউর রহমানের কার্যালয়ে হাজির হয়ে অভিযোগে জানান, পিতৃহারা এই কিশোরী ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বিলঘেরোয়া গ্রামের বাসিন্দা। সে ৭ই জুন নান্দাইল উপজেলার চরশ্রীরামপুর গ্রামে তার বোনের বাড়িতে বেড়াতে আসে।

পুর্ব পরিচয়ের সুত্র ধরে চরশ্রীরামপুর গ্রামের রাজু (১৭), সবুজ, মিন্টু, লিটন, মাসুদ, কালিয়া নামক যুবকেরা উক্ত কিশোরীকে সন্ধ্যা রাতে জোরপূর্বক রাস্তা থেকে উঠিয়ে নিয়ে চরশ্রীরামপুর গ্রামের একটি জঙ্গলে রাতভর একাধিকবার ধর্ষন করে। ধর্ষকরা ধর্ষিতা কিশোরীর চাচাঁতো ভাই শিবলীকে বেধে রেখে জঙ্গলে ফেলে রাখে। ভোরবেলা মেয়েটিকে মারাত্মক আহত অবস্থায় তার বোনের বাড়িতে রেখে গত কয়েকদিন যাবৎ চিকিৎসা দেওয়া হয়।

ধর্ষকরা এলাকায় প্রভাবশালী হওয়ায় মেয়েটির পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা সম্ভব হয়নি। এদিকে ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হয়ে যাওয়ায় ১২ই জুন রোববার বেলা ২টার দিকে গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তি মেয়েটিকে নান্দাইল মডেল থানায় পৌছে দেয়। এই প্রতিনিধি সহ অন্যান্য মিডিয়া কর্মীদের নিকট ধর্ষিতা ধর্ষনের লোমহর্ষক কাহিনী বর্ণনা করেন। মেয়েটিকে এখনও অসুস্থ দেখা গেছে।

থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি সহ আসামী গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে তৈরী হতে দেখা গেছে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts