যশোরে বিএনপি নেতা খুন

Murder

যশোরে জেলা বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ফেরদৌস হোসেন (৫০) দলীয় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন।

বুধবার রাত ১০টার দিকে শহরের লোহাপট্টি এলাকায় বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে এক বিএনপিকর্মীর ছুরিকাঘাতে তিনি নিহত হন। নিহত ফেরদৌস হোসেন শহরতলী বিরামপুর এলাকার বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার রাত ১০টার দিকে শহরের লোহাপট্টি এলাকায় বিএনপি নেতা ফেরদৌস হোসেনের সঙ্গে বিএনপি কর্মী ফারুকের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ফারুক তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে নেয়ার কিছুক্ষণ পর তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ওহিদুজ্জামান আজাদ জানান, তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে।

যশোর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু জানিয়েছেন, ফেরদৌস হোসেন জেলা বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক। তার ওপর কারা হামলা করেছে তা এখনও আমরা জানতে পারিনি।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস হোসেন জানান, অভ্যন্তরীণ বিরোধের জের ধরে দলীয় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে তার মৃত্যু হয়েছে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment