হোটেলে অনৈতিক কাজ করায় কলেজছাত্রীসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

arrest logo

ভেদরগঞ্জের এমএ রেজা ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতিকে একই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর এক ছাত্রীসহ ভেদরগঞ্জ হোটেল শের আলীর একটি কক্ষ থেকে আটক করেছে পুলিশ।

আটকের তিন ঘণ্টা পর মুচলেকা নিয়ে তাদের ছেড়ে দিয়েছে ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশ।

ভেদরগঞ্জ থানার এএসআই বজলু রহমান ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সোমবার ভেদরগঞ্জের এমএ রেজা ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফাহাদ হোসেন রাড়ী সকাল সাড়ে ১০টায় একই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে নিয়ে হোটেল শের আলীর একটি কক্ষে অবস্থান করছিল।

খবর পেয়ে ভেদরগঞ্জ থানার এএসআই বজলু রহমান তাদেরকে আটক করে ভেদরগঞ্জ থানায় নিয়ে যান। সেখান প্রায় তিন ঘণ্টা আটকে রেখে ফাহাদ এবং ওই ছাত্রীর অভিভাবকদের খবর দেয়। অভিভাবকরা এসে মুচলেকা দিলে তাদের দুজনকে পুলিশ ছেড়ে দেয়।

এ খবরে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে শত শত লোক তাদের দেখার জন্য থানার সামনে ভিড় জমায়।

হোটেল শের আলীর মালিক মো. শের আলী বলেন, ‘সকাল ১০টায় ভেদরগঞ্জের এমএ রেজা ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফাহাদ আমার কাছে একটি কক্ষের চাবি চায়। আমি চাবি দিয়ে শরীয়তপুর জেলা সদরে চলে আসি। এর বেশি কিছু জানি না।’

এ ঘটনায় ফাহাদকে তার মোবাইলফোনে কল দিলে কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অশ্রু হাওলাদার ফোন রিসিভ করে বলেন, ‘ফাহাদ অসুস্থ। হোটেলের ঘটনা মিথ্যা ও বানোয়াট।’

এ ব্যাপারে ভেদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ কবিরুজ্জামান বলেন, ‘আমরা খবর পেয়েছি শের আলী হোটেলে অনৈতিক কাজ চলছে। পরে পুলিশ হোটেলের সামনে থেকে ছাত্রলীগের সভাপতি ফাহাদ এবং ওই কলেজছাত্রীকে আটক করে।’

তিনি বলেন, ‘অভিভাবকদের ডেকে এনে মুচলেকা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।’

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts