অচেতন করে কিশোরীকে ধর্ষণ

Rape logo 1
Share Button

নেত্রকোনায় খাবারের সঙ্গে চেতনানাশক দ্রব্য মিশিয়ে খাইয়ে এক কিশোরীকে (১৪) অচেতন করে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আজ সন্ধ্যায় জামাল উদ্দিন (২৮) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মেয়েটির বাবা ও মা এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। রাতে তাঁরা বাড়ি ফেরেননি। এ সুযোগে রাতে একই গ্রামের জামাল মিষ্টিজাতীয় খাবার নিয়ে ওই কিশোরীর বাড়ি যান। বাড়িতে ওই কিশোরীর বৃদ্ধ দাদা ও ছোট ভাই ছিল। ওই মিষ্টি খাওয়ার পর সবাই অচেতন হয়ে পড়েন। এই সুযোগে জামাল কিশোরীটিকে ধর্ষণ করেন। প্রতিবেশীরা সকালে খোঁজ নিয়ে বিষয়টি জানতে পারেন। কিশোরীকে উদ্ধার করে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আটপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রমিজুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মেয়েটিকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts