ঘুমের ওষুধ খাইয়ে প্রতিরাতে কিশোরী মেয়েকে ধর্ষণ বাবার!

girl raped with teacher

ঘুমের ওষুধ খাইয়ে দিনের পর দিন ১৩ বছরের এক কিশোরীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে তার বাবার বিরুদ্ধে। রাজধানীর পল্লবীর বাওনীয়াবাদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

কিশোরী ও তার মায়ের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আজ শনিবার বিকেলে মেয়েটির বাবা আলমগীর হোসেনকে (৩৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি পেশায় একজন রিকশাচালক।

পুলিশ জানায়, ওই কিশোরীর মা একজন তৈরি পোশাককর্মী। প্রায় রাতেই তাঁকে নাইট শিফটে কাজ করতে হয়। এই সুযোগে মেয়েকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে অচেতন করে যৌন নির্যাতন করতেন বাবা আলমগীর।

তবে গত ২৮ রমজান মেয়েটি চেতনা ফিরে পেলে বাবার অপকর্মের প্রতিবাদ করে। কিন্তু তাতেো রেহাই মেলেনি। ছুরি দিয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে নির্যাতন করেন বাবা।

ধর্ষণের বিষয়ে এত দিন জানতেন না মেয়েটির মা। গতকাল শুক্রবার রাতে আলমগীর ফের ধর্ষণের চেষ্টা করলে কিশোরীর মাধ্যমে তার মা পুরো ঘটনা জেনে যান।

পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দাদন ফকির বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আলমগীর মেয়েকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

যেহেতু ধর্ষণ মামলা তাই পুলিশের সহায়তায় ওই কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টাফ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হবে বলে জানান ওসি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts