দেবরের সঙ্গে পরকিয়া, দেবরের হাতেই প্রাণ গেল গৃহবধূর

Gaibandha
Share Button

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় লাইজু বেগম (২৬) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার সকালে উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নে বলরাম গ্রামে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় লাইজু বেগমের বাবা নয়া মিয়া অভিযোগ করেছেন তার মেয়েকে পিটিয়ে এবং শ্বাসরোধে হত্যার পর রান্না ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়।

এদিকে পুলিশ ও এলাকাবাসি জানান, ওই গ্রামের মঞ্জু মিয়ার সঙ্গে লাইজু বেগমের প্রায় আট বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের ছয় বছরের একটি ছেলে রয়েছে।

লাইজুর স্বামী মঞ্জু মিয়া ঢাকায় রিকশা চালায়। সে সুযোগে প্রতিবেশী দেবর মুশফিকুর রহমানের (২৭) সঙ্গে তার অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় লাইজু বেগম কিছুদিন থেকে মুশফিকুরকে চাপ দিচ্ছিল পালিয়ে যাওয়ার জন্য। এ নিয়ে তাদের দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল।

শুক্রবার রাতে লাইজু বেগম মুশফিকুরকে তার ঘরে ডেকে এনে এ ব্যাপারে একটা ফয়সালার দাবি করতে থাকে। ফলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

লাইজুর শিশু পুত্র লিমন জানায়, মুশফিকুর তার মাকে কিল ঘুষি এবং গলাটিপে ধরে। এতে তার মা মারা যায়।

এলাকাবাসি মুশফিকুরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts