ধর্ষণ করতে গিয়ে লিঙ্গ হারালেন পুলিশের দালাল

jhalakathi

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণ করতে গিয়ে লিঙ্গ হারালেন থানা পুলিশের দালাল খ্যাত আব্দুল মন্নান (রেন্ট-এ-কার মন্নান) (৪০)।

শনিবার গভীর রাতে উপজেলার আমরিবুনিয়া গ্রামে এ ঘটনার পর স্থানীয়রা মন্নানকে গণপিটুনি দিয়েছে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

দুই সন্তানের জননী ওই গৃহবধূ জানান, মন্নান বহুদিন ধরে তাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এ প্রস্তাবে গৃহবধূ রাজি না হওয়ায় তার স্বামীর বিরুদ্ধে চুরির মিথ্যে অভিযোগ তুলে তাকে বাড়িছাড়া করে।

তিনি জানান, ঘটনার রাতে মন্নান তার বাড়িতে গিয়ে দরজায় আঘাত করলে, দরজা খুলে তিনি মন্নানকে দেখতে পান। কিছু বুঝে না উঠতেই মন্নান তার মুখ চেপে ধরে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এ সময় গৃহবধূ ছুরি দিয়ে তার লিঙ্গে আঘাত করে। এতে তার লিঙ্গ কেটে যায়। উভয়ের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে মন্নানকে গণধোলাই দেয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মাঈনুল হোসেন বলেন, ‘আমি বিষয়টি চেয়ারম্যানকে অবহিত করে গুরুতর আহত মন্নানকে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পাঠিয়ে দেই।’

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, উন্নত চিকিৎসার জন্য আহত মন্নানকে রোববার দুপুরে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, রেন্ট-এ কার মন্নান দীর্ঘদিন যাবৎ কাঁঠালিয়া থানা পুলিশের দালাল হিসেবে কাজ করে আসছিল।

কাঁঠালিয়া থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুল মালেক জানান, এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়নি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment