প্রেমের ফাঁদে ধর্ষণ করে গোপন ক্যামেরায় ভিডিও ধারণ

স্ত্রীর অবৈধ যৌনমিলনের ভিডিও ফাঁস করলেন স্বামী : অতঃপর
Share Button

নেত্রকোনা শহরের সাতপাই এলাকায় একটি প্রাইভেট কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টারে মেয়েদের প্রেমের ফাঁদে ফেলে শারীরিক সম্পর্ক করে গোপন ক্যামেরায় ভিডিওচিত্র ধারণ করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে ট্রেনিং সেন্টারের মালিক মো. আলমকে (২৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু তাহের দেওয়ান বলেন, জেলা শহরের দক্ষিণ সাতপাই এলাকার মৃত জয়নাল আবেদিনের ছেলে মো. আলম সাতপাই রেলক্রসিং এলাকায় ‘আইকন কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার’ কম্পিউটার ট্রেনিংয়ের ব্যবসা করে আসছিলেন।
ট্রেনিং সেন্টার চালানোর আড়ালে দীর্ঘদিন ট্রেনিং নিতে আসা বিভিন্ন শিক্ষার্থীদের প্রেমের ফাঁদে ফেলে যৌন সম্পর্ক স্থাপন ও গোপন ক্যামেরা দ্বারা ভিডিওচিত্র ধারণ করে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে আসছে।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মডেল থানা পুলিশ বুধবার রাত ১০টার দিকে তার ট্রেনিং সেন্টারে অভিযান চালিয়ে মো. আলমকে গ্রেফতার করে। পরে সেখান থেকে একটি কম্পিউটার, একটি মোবাইল সেট ও ভিডিও ধারণকৃত তিনটি সিডি ক্যাসেট জব্দ করে।
এ ব্যাপারে মডেল থানা পুলিশের এসআই আল আমিন বাদী হয়ে অভিযুক্ত মো. আলমের বিরুদ্ধে ২০১২ সালের পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা করেন।
নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু তাহের দেওয়ান জাগো নিউজকে বলেন, বৃহস্পতিবার বিকেলে গ্রেফতার আলমকে আদালতের মাধ্যমে জেলা হাজতে পাঠানো হয়েছে।

 

 

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts