বিউটি পার্লারে মদ্যপানের আসর, গণধর্ষণের শিকার হলেন তরুণী (ভিডিও দেখুন)

Rape logo 1

মঙ্গলবার বিকেলে ‘ফেস টু ফেস’ বিউটি পার্লার থেকে ফোনটা এসেছিল তরুণীর মোবাইলে। ফোনের ওপারে ছিলেন মুকুন্দপুরের ‘ফেস টু ফেস’ বিউটি পার্লারের হেয়ার ড্রেসার রাজকুমার মান্না। তরুণীকে জানিয়েছিল সন্ধ্যার মধ্যে বিউটি পার্লারে আসতে। একসঙ্গে বসে বিয়ার খাবেন। বছর তিরিশের রাজকুমারের কাছে কিছুদিন কাজ শিখেছিলেন ওই তরুণী।

পূর্বপরিচিত রাজকুমারের কথায় তরুণী সন্ধ্যার মধ্যেই হাজির হয়ে গিয়েছিলেন ‘ফেস টু ফেস’ বিউটি পার্লারে। ততক্ষণে খদ্দেরদের বিদায় করে বিউটি পার্লার বন্ধ করে দিয়েছিল রাজকুমার। বিউটিপার্লারের আর এক কর্মী অরুণ কুমার মণ্ডল ততক্ষণে এনে হাজির করেছে বিয়ার ভর্তি বোতল এবং খাবার। এরপর রাজকুমার, অরুণ এবং ওই তরুণী একসঙ্গে বন্ধ বিউটি পার্লারের মধ্যে বিয়ার পান করে।

দেখুন ভিডিও…

মঙ্গলবারের এই ঘটনার পর বাড়িও ফিরে যান ওই তরুণী। কিন্তু, বুধবার রাতে তিনি পূর্ব যাদবপুর থানায় রাজকুমার এবং অরুণের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন। তরুণী তাঁর অভিযোগে জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিউটি পার্লারের মধ্যে বিয়ার পানের সময়ে তাঁর খাবারে কিছু মেশানো হয়েছিল। এরপর তিনি আচ্ছন্ন হয়ে পড়েছিলেন। এই সুযোগে তাঁকে ধর্ষণ করে রাজকুমার এবং অরুণ। তরুণীর দাবি, তিনি সবই বুঝতে পারছিলেন কিন্তু, নেশার ঘোরে প্রতিরোধ করার ক্ষমতা হারিয়েছিলেন। ঘটনার পর রাজকুমার তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি দেয় বলে অভিযোগ করেন তরুণী।

বুধবার সকালে ই এম বাইপাস সংলগ্ন এলাকা থেকে রাজকুমার মান্না ও অরুণকুমার মণ্ডলকে গ্রেফতার করা হয়। ইতিমধ্যে তরুণীর মেডিক্যাল টেস্টও হয়। পুলিশ সূত্রে খবর, মেডিক্যাল টেস্টে ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে। জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত রাজকুমারের বাড়ি মেদিনীপুরে। কসবার রাজডাঙায় একটি মেসে থাকত রাজকুমার।

দেখুন ভিডিও…

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts