পাকিস্তান দূতাবাস ঘেরাও

Share Button

বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলানোর প্রতিবাদে ঢাকাস্থ পাকিস্তান দূতাবাস ঘেরাওয়ের চেষ্টা করেছে বেশ কয়েকটি সংগঠন।

বুধবার (০৮ জুন) দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর গুলশান ১ নম্বরে পাকিস্তান দূতাবাস ঘেরাওয়ের চেষ্টা করে আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, শ্রমিক লীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গুলশান বিভাগের পুলিশের এডিসি আব্দুল আহাদ।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলানোর প্রতিবাদে বেশ কয়েকটি সংগঠন পাকিস্তান দূতাবাস ঘেরাও করতে আসে। কিন্তু যেহেতু এটা কূটনৈতিক জোন, তাই এখানে এ ধরনের কর্মসূচির কোনো সুযোগ নেই।’

পরে আধঘণ্টা ওইসব সংগঠনের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে ওই এলাকা থেকে সরে আসেন।

উল্লেখ্য, একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্তদের ফাঁসি কার্যকরকে কেন্দ্র করে প্রায় প্রত্যেকবারই প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করেছে পাকিস্তান। সর্বশেষ জামায়াতের আমীর মাওলানা মতিউর রহমান নিমাজীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হলে পাক পার্লামেন্টে এ নিয়ে বাংলাদেশ সরকার ও বিচার ব্যবস্থার তীব্র সমালোচনা করা হয়। এমনকি নিমাজীকে ‘নিশান-ই পাকিস্তান’ ম্যান্ডেটও দেয়া হয় দেশটির পক্ষ থেকে।

এদিকে, স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে দেশের অভ্যন্তরীণ কোনো ব্যাপারে অন্য দেশের অযাচিত হস্তক্ষেপে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকার তথা সাধারণ জনগণ। বিশেষত, একাত্তরে পরাজিত শক্তি পাকিস্তান তাদের দোষর যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতেই বারবার নানা ছল করছে। যদিও বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ ইস্যুতে নাক না গলাতে পাকিস্তানকে একাধিকবার হুঁশিয়ার করা হয়েছে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts