বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের বাসায় ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন

Share Button

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ওই ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এব্যাপারে গত ১২ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা  বিভাগের ছাত্রী বিভাগীয় সভাপতি ও এসিস্ট্যান্ট প্রফেসর রোকনুজ্জামানের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম (এআইএস) বিভাগের লেকচারার রবিউল ইসলাম একই বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ওই ছাত্রীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়েন।
একপর্যায় তাদের মধ্যে ঘনিষ্টতা বেড়ে যায়। এ সুযোগে গত ১৪ জানুয়ারি রবিউল ইসলাম ওই ছাত্রীকে তার বাসায় ডেকে নিয়ে তাকে যৌন নিপীড়ন করেন।

এরপর থেকে ওই শিক্ষক কৌশলে তাকে (ছাত্রী) এড়িয়ে চলছেন। এছাড়া বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করতে তাকে নানা ভয়ভীতিসহ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিস্কারের হুমকি দেয়া হচ্ছে।

ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী তার লিখিত অভিযোগে আরও উল্লেখ করেন, শিক্ষক রবিউল ইসলাম তার প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেছেন। তার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। এ অবস্থায় তিনি নিজেকে খুবই অসহায় মনে করছে। ফলে তার পক্ষে বেঁচে থাকা খুব কঠিন হবে।

অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের লেকচারার রবিউল ইসলাম যৌন হয়রানির বিষয়টি সাংবাদিকদের এড়িয়ে গেছেন। তিনি বিষয়টিকে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে উল্লেখ করেন।

এছাড়া গত ১২ ফেব্রুয়ারি অভিযোগকারী ওই ছাত্রীর অভিভাবক এসে ভিসির সামনে লিখিত দিয়ে অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। যা পরবর্তীতে চিঠি দিয়েও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারকে জানানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের এসিস্ট্যান্ট প্রফেসর  মো. রোকনুজ্জামান বলেন, আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়ার এখতিয়ার আমার নেই। তাই অভিযোগ পত্রটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। এবিষয়ে কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts