আবার অভিনয় করবেন মোনালিসা

আবার অভিনয় করবেন মোনালিসা
Share Button

ছোটপর্দার প্রিয়মুখ মোনালিসা। একসময় তুমুল ব্যস্ততা ছিল তার। কিন্তু ২০১২ সালে বিয়ের পরই পাল্টে যায় তার জীবন। স্বামীর সঙ্গে পাড়ি দেন আমেরিকায়। চাকুরীতে মনোনিবেশ করেন। বাংলাদেশী মিডিয়া থেকেও অনেকটায় দুরে ছিলেন তিনি।

সম্প্রতি স্বামীর সঙ্গে ডিভোর্সের পর দেশে ফিরে আসেন। ফিরেই পরিণত হন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। কেমন ছিলো আমেরকিার জীবন, দেশে কতোদিন থাকবেন, অভিনয়ে ফিরবেন কিনা-এসব বিষয়ে কথা বলেন একটি অনলাইনের সঙ্গে।

দীর্ঘদিন পর দেশে ফিরলেন। কেমন লাগছে?

অ-নে-ক ভালো লাগছে। সেটা বলে বুঝাতে পারবোনা। সবার ভালোবাসায় আমি মুগ্ধ।

দেশে ফেরার পর সময়গুলো কেমন কাটছে?

প্রথমে ভেবেছিলাম, একটু পরে সবাইকে দেশে ফেরার খবরটা দেব। কিন্তু বিমানবন্দর থেকে নেমে এতোই এক্সাইডেট ছিলাম যে, না জানিয়ে আর পারিনি। তারপর থেকেই এখন ফোনের পর ফোন আসছে। ভক্ত-সহকর্মী-সংবাদকর্মীরা ফোনে খোঁজখবর নিচ্ছে। ২৪ ঘন্টায় ফোনের উপর আছি। এখন ঠিকমতো ঘুমাতে পারছিনা।

আমেরিকার দিনগুলি কেমন ছিলো?

খুব ব্যস্ত ছিলাম। কয়েকটা জব সুইস করেছি। ফ্রি টাইম বলতে ছিলো না। কালে-ভদ্রে সময় পেতাম। প্রবাসী বাঙালীদের সঙ্গে দেখা হতো। পহেলা বৈশাখে কিংবা ভিন্ন কোন অনুষ্ঠানে বাঙালীদের সঙ্গে মাঝে মধ্যে দেখা হতো।

আমেরিকায় থাকাকালীন কাকে বেশি মিস করেছিলেন?

ফ্যামেলিকে বেশি মিস করেছি। আর ফ্যানদের মিস করেছি। মিডিয়ার মেয়ে হিসেবে শিল্পসত্ত্বাটা রক্তের ভেতরে। তাই মিডিয়াকে তো মিস করাটা স্বাভাবিক। ফেসবুকে অনেক ভক্তরাই আমাকে ফেরার তাগিদ দিতেন। ভক্তরা চাইতেন আমি কাজ করি। এই রেসপন্সটাই আমার অ্যাচিভমেন্ট। এখানেই আমার স্বার্থকতা। একটা কারণে আমি দেশের বাইরে ছিলাম। এখন আবার ফিরে এসেছি।

এবার তাহলে দেশেই স্থায়ী হচ্ছেন?

আপাতত কোথাও যাচ্ছিনা। যতোদিন ভালো লাগে দেশেই থাকবো।

অভিনয়ে পরিকল্পনা করেছেন কিনা?

অভিনয় করবো। তবে বেছে বেছে কিছু ব্যতিক্রম কাজ করবো। বেশি কাজ করার পক্ষে ছিলাম। না। সেকারণেই এখনো মানুষ আমাকে ভালোবাসে।

দীর্ঘদিন মিডিয়ার বাইরে থাকার ফলে আপনার অভিনয়ে প্রভাব পড়বে কিনা?

মনে হয়না খুব একটা প্রভাব পড়বে। তবে সেটা ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেই বুঝতে পারবো।

সামনে কি কাজ করছেন?

১৬ তারিখে সাগর জাহানের একটি নাটকে শুটিং করবো। নাটকটির নাম বলছিনা। সারপ্রাইজ হিসেবে থাক। সাগর জাহানের সিকান্দার বক্স সিরিজের নাটক করেই আমি আমেরিকা পাড়ি দিয়েছিলাম। তার ডিরেকশনেই আবার ব্যাক করছি।

এক সাক্ষাতকারে বলেছিলেন, স্বামীর সঙ্গে ডিভোর্সের আইনগত বিষয়গুলো সম্পাদন করে বাংলাদেশে আসছেন। সেটা কি আপডেট?

আইনগত বিষয়াদি সম্পাদন হয়েছে। সেকারণেই দেশে এসেছি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment