গায়ক অঙ্কিত তিওয়ারি কি প্রেমিকাকে সত্যিই ধর্ষণ করেছিলেন?

গায়ক অঙ্কিত তিওয়ারি

পরিচিতির দিক থেকে তিনি এখন বলিউডের অন্যতম প্রতিশ্রুতিবান গায়ক ও সুরকার। নিজের সুরে ‘আশিকি ২’ সিনেমার ‘‘শুন রহা হ্যায় না তু’’, কিংবা ‘এক ভিলেন’ সিনেমার ‘‘গলিয়াঁ’ গান গেয়ে সঙ্গীতপ্রেমীদের মন জয় করেছেন অঙ্কিত তিওয়ারি। কিন্তু জানেন কি, ৩০ বছর বয়সি এই গায়কই এক সময়ে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত হয়েছিলেন?

সময়টা ২০১৩-১৪ সাল। সেই বছরের শুরুর দিকে বিজ্ঞাপন সংস্থায় কর্মরতা এক ২৮ বছর বয়সি তরুণী অঙ্কিতের বিরুদ্ধে মুম্বইয়ের ভেরসোভা পুলিশ থানায় ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন। নিজের অভিযোগে তরুণী জানান, অঙ্কিত তাঁর সঙ্গে প্রেমের ছলনা করে গিয়েছেন। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে অক্টোবর ২০১২ থেকে ডিসেম্বর ২০১৩-এর মধ্যে বহুবার তাঁকে ধর্ষণ করেন অঙ্কিত। কিন্তু তার পরে তাঁকে বিয়ে করতে অঙ্কিত অস্বীকার করেন। তখনই থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তরুণী।
৯ মে ২০১৪ তারিখে সেই অভিযোগের ভিত্তিতে অঙ্কিতকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এমনকী, অঙ্কিতের দাদা অঙ্কুরকেও গ্রেফতার করা হয়। অঙ্কুরের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তিনি ওই তরুণীকে অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য ক্রমাগত চাপ দিচ্ছিলেন। খুনের হুমকি পর্যন্ত নাকি দিয়েছিলেন অঙ্কুর। হপ্তা খানেক বাদে ২০ হাজার টাকা বন্ডের বিনিময়ে জামিন পান অঙ্কিত।

এখন অবশ্য সেই স্মৃতি আর মনে রাখেননি কেউ। ২০১৪ সালেই বিপুল জনপ্রিয়তা পায় ‘আশিকি ২’-এর গানগুলি। জামিন পাওয়ার পরে-পরেই মুম্বই পুলিশের অনুষ্ঠানে গান গাইতে দেখা যায় অঙ্কিতকে। ধর্ষণে অভিযুক্ত একজন আসামী কেন পুলিশের অনুষ্ঠানে গাইবার সুযোগ পাবেন, সেই প্রশ্ন কেউ কেউ তুলেছিলেন সেই সময়ে। কিন্তু সেলিব্রিটি বলে কথা! সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সবই চাপা পড়ে গিয়েছে অঙ্কিতের সুনামের নীচে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts