নওশীনের খোলামেলা দৃশ্যে সমস্যা হয়নি যে কারণে

নওশীন-হিল্লোলের 'মুখোশ মানুষ'
Share Button

‘প্রথমে বলবো সিনেমায় চরিত্রে আমাকে যেভাবে চেয়েছে আমি একজন অভিনেত্রী হিসেবে সেই কাজটি করেছি। আর বলছেন খোলোমেলা দৃশ্যের কথা, সেক্ষেত্রে বলবো আমার কোনো সমস্যায় পড়তে হয়নি। কারণ স্বামী হিল্লোলকে আমি সঙ্গে পেয়েছি। আর কল্যাণ তো আমার বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধু তাই ঝামেলা হয়নি। তবে অন্য কোনো অভিনেতা থাকলেও আমার সমস্যায় হতো না।’

একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেল অনলাইনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই কথাগুলো বলেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী নওশিন।

বলিউড কিংবা হলিউড ছবিতে হরহামেশাই নায়ক-নায়িকার অন্তরঙ্গ দৃশ্য দেখা যায়। কিন্তু ঢালিউডে নায়ক-নায়িকার অঙ্গরঙ্গ দৃশ্য থাকা মানে সমালোচনার ঝড় উঠা। তবে সেই সমালোচনা ছাপিয়ে অভিনেত্রী নওশিন ও অভিনেতা হিল্লোল একটি দৃষ্টান্ত রাখলেন।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর সারাদেশে মুক্তি পাচ্ছে তাদের জুটিবদ্ধ সিনেমা ‘মুখোশ মানুষ’। ছবিটি মুক্তির পাওয়ার আগেই নায়ক-নায়িকার অতিরিক্ত খোলামেলা দৃশ্যের জন্য সমালোচনায় পড়েছেন। যা নিয়ে বর্তমানে চলছে তর্ক-বির্তক। তবে জনপ্রিয় অভিনেত্রী নওশিন জানালেন এই খোলোমেলা দৃশ্যের আসল কথা।

ছবির ট্রেইলর প্রকাশের পর ব্যাপক সমালোচনা সৃষ্টি হয়েছে। আর এই সমালোচনার প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, শুধু একটি কথাই বলবো পুরো সিনেমাটি না দেখে শুধুমাত্র সিনেমার ট্রেইলর দেখেই কোনো কিছু বিচার করা যায় না। তাই যারা ট্রেইলরটি নিয়ে সমালোচনা করছেন তাদের আমি একটি কথাই বলবো আগে সিনেমাটি দেখুন, আমাদের অভিনয় দেখুন, সিনেমায় যে বার্তা রয়েছে তা বোঝার চেষ্টা করুন। তারপরে গিয়ে সমালোচনা করুন।

সিনেমায় খোলামেলা দৃশ্য সম্পর্কে তিনি বলেন, প্রথমে বলবো সিনেমায় চরিত্রে আমাকে যেভাবে চেয়েছে আমি একজন অভিনেত্রী হিসেবে সেই কাজটি করেছি। আর বলছেন খোলোমেলা দৃশ্যের কথা, সেক্ষেত্রে বলবো আমার কোনো সমস্যায় পড়তে হয়নি। কারণ স্বামী হিল্লোলকে আমি সঙ্গে পেয়েছি। আর কল্যাণ তো আমার বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধু তাই ঝামেলা হয়নি। তবে অন্য কোনো অভিনেতা থাকলেও আমার সমস্যায় হতো না।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts