নায়িকা পরীমনির কাবিননামাসহ ঘনিষ্ঠ ছবি প্রকাশ

নায়িকা-পরীমনির-কাবিননামাসহ-ঘনিষ্ঠ-ছবি-প্রকাশ.
Share Button

আলোচিত নায়িকা পরীমনির সঙ্গে ইসমাইল নামে এক ব্যক্তির ছবি প্রকাশকে কেন্দ্র করে রবিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ঝড় বইছে। রবিবার দুপুরে অনিক আব্রাহাম নামের এক ব্যক্তি তার ফেসবুকে এইসব ছবি পোস্ট করেন।
ইসমাইল নামে কথিত স্বামীর সঙ্গে পরীমনির ছয়টি ছবি পোস্ট করে অনিক আব্রাহাম ফেসবুকে স্ট্যাটাসে লিখেছিলেন, ‘আমার বন্ধু ইসমাইল আর তার স্ত্রী স্মৃতি মনি, যে আজ বাংলা চলচ্চিত্রের আলোচিত নায়িকা পরীমনি। এক সময় ভোলা সদরেই থাকত তার জামাইর বাড়িতে।
তারপর তার নেশা গেল অর্থ আর লোভ-লালসার দিকে। যার জন্য আমার সহজ-সরল বন্ধুকে ত্যাগ করতে দ্বিধাবোধ করল না। যাই হোক ছবিগুলো দেখে পুরনো দিনের কথা মনে পড়ে গেল। তাই সবার সঙ্গে একটু শেয়ার করলাম।’

এই স্ট্যাটাসের প্রতিউত্তরে পরীমনি দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেছিলেন, ‘কারও সঙ্গে ছবি থাকলেই সে আমার স্বামী হয়ে যায় না। তাছাড়া যার সঙ্গে ছবি সে তো ছবিগুলো প্রকাশ করেনি। তার এক বন্ধু উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে ছবিগুলো প্রকাশ করেছেন। তারকাদের নিয়ে এ রকম গসিপ থাকেই। এখন আমার কোলে কোনো বাচ্চা নিয়ে ছবি তুললেই নিশ্চয় সেই বাচ্চাটা আমার হয়ে যাবে না?’
পরীমনি আরও বলেন, ‘ছবির ছেলেটি আমার কাজিন। ছোটবেলা থেকেই তাকে আমি চিনি। তাছাড়া এ ছবিতে এমন কী আছে যে ছেলেটিকে আমার স্বামী বলা হচ্ছে। সত্যিই যদি সেটা হয় তবে প্রমাণ হাজির করুক।’
এই নিউজ প্রকাশের পর প্রমাণ হাতে নিয়েই হাজির হয় ইসমাইলের পরিবর্তে আরেক ব্যক্তি সৌরভ কবীর।

রাতে শাকিল রিয়াজ তার ফেসবুকে সৌরভ কবীর নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে পরীমনির বেশকিছু ঘনিষ্ঠ ছবি পোস্ট করেন। এমন কি গণমাধ্যমের কাছে পরীর সঙ্গে বিয়ের কাবিননামাও প্রকাশ করেন।

শাকিল রিয়াজের দেওয়া ফেসবুকের লেখাটি এমন, ‘একটু আগে পরীমনি ভাবীকে নিয়ে একটা পোস্ট দেখলাম, যেখানে ভাবীকে নিয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তিকর স্ক্যান্ডাল ছড়ানো হয়েছে। আসল সত্য হয়তো অনেকেই জানেন না।

পরীমনির আসল নাম সামসুর নাহার স্মৃতি। ভাবী আমাদের খুব কাছের বড় ভাইয়ের বৌ। ভাইয়ের নাম সৌরভ কবীর। ভাবীকে নিয়ে এইসব বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর কারণে আমি আর মুখবুজে থাকতে পারলাম না। আমার মনে হলো এখনই

সময়- আসল সত্যটা সবার সামনে তুলে ধরার। ভাই এবং ভাবীর বিয়ে হয় ২৮ এপ্রিল ২০১২ সালে। ৩ বছর প্রেম করার পরে তারা নিজেদের ইচ্ছায় বিয়ে করে এবং পরে সেটা দুই পরিবার থেকেই মেনে নেয়।

ভাইয়ের বাসা যশোরের কেশবপুরে। ভাই এবং ভাবী নিজেদের পেশার জগৎ আলাদা। ভাই পেশায় একজন প্রফেশনাল ফুটবলার। ভাই এবং ভাইয়ের পরিবারের সম্মতিতেই ভাবী মিডিয়া জগতে প্রবেশ করে। ভাই এবং ভাবীর নিজেদের ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করে তাদের এ সম্পর্কের কথা আড়াল করে রেখেছে। তারা এখনও একসঙ্গে বিবাহিত জীবনযাপন করছেন।

কিন্তু আজকের এ ঘটনার পরে আমি আর মুখবুজে থাকতে পারলাম না। আসল সত্য সবার সামনে তুলে ধরলাম। ভাই এবং ভাবী আপনারা কিছু মনে করলেও আমি বাধ্য হয়ে এই পোস্টটি করলাম। আমার এই পোস্ট নিয়ে যদি কারও কোনও সন্দেহ থেকে থাকে তাহলে আমরা প্রমাণ দেওয়ার জন্য প্রস্তুত।’
সব মিলিয়ে পরীকে নিয়ে তৈরি হয়েছে নতুন প্রশ্ন? কে পরীর আসল স্বামী ইসমাইল নাকি সৌরভ কবীর!

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment