নায়িকা বানানোর নামে স্যার ২ বছর ধরে ধর্ষণ

নায়িকা বানানোর নামে স্যার ২ বছর ধরে ধর্ষণ
Share Button

বলিউডে একটা ব্রেক পাওয়ার স্বপ্ন বুনেছিল মেয়েটি। গ্ল্যামার দুনিয়ায় নিজের একটা জায়গার ‘খোয়াব’। কিন্তু বলিউডে জায়গা পাওয়া তো দূর-অস্ত, দু’বছর ধরে বড়পর্দায় সুযোগ দেওয়ার নামে অভিনয় শিক্ষকের নৃশংস যৌন লালসার শিকার হতে হল বছর ১৭-র মেয়েটিকে। ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে সুনীল কুলকার্নি নামে ওই ব্যক্তিকে। ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির বসন্তকুঞ্জ এলাকায়। খবর-এই সময়

শিখা (নাম পরিবর্তিত) নামে ১৭ বছর বয়সি ওই নাবালিকা জানিয়েছে, বলিউডে অভিনয়ের জন্য ২০১৪ সালে গাজিয়াবাদে একটি অ্যাক্টিং স্কুলে ভর্তি হয় সে। সেখানে সুনীল কুলকার্নি নামে ওই শিক্ষক তাকে বলে, তার অনেক পরিচিত রয়েছে বলিউডে। সিনেমায় সুযোগ করে দেবে সে। সুনীল কুলকার্নিকে নিজের মেন্টর মেনে নেয় মেয়েটি। এরপর মেয়েটিকে গাজিয়াবাদ থেকে দিল্লি নিয়ে আসে সুনীল। একটি ফ্ল্যাটে আটকে রাখে।

তারপর থেকেই ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করা শুরু করে সুনীল। শিখার কথায়, ‘আমি বাধা দিলেই, বলত সিনেমা করতে দেবে না। সকলকে বলে দেবে। আমি লজ্জায়, ভয়ে

শরীর দিতে বাধ্য হতাম। খুব অত্যাচার করেছে। সুনীল আমার বাবা-মার সঙ্গেও দেখা করে। মুম্বই যাওয়ার দুটো প্লেনের টিকিটিও দেখায়। বলে আমায় মুম্বই নিয়ে যাবে। আজ আমার সব শেষ।’ ঘটনায় মূল অভিযুক্ত সুনীল কুলকার্নিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts