যে কারণে সালমান খানকে গণধর্ষিতার আইনি নোটিস!

actor-salman-khan-in-hot-water-over-rape-remark
Share Button

ধর্ষণ নিয়ে মন্তব্য করার জেরে এবার আরও বড় ঝামেলায় ফাঁসছেন সালমান খান। ইতিমধ্যে নানামহলে সমালোচনার মুখে তো পড়েইছিলেন, এবার তার বিরুদ্ধে আইনি নোটিস পাঠালেন হরিয়ানার হিসার জেলার এক গণধর্ষিতা। সেইসঙ্গে দাবি করা হল ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ।

২০১২ সালে আটজন আততায়ীর হাতে গণধর্ষণের শিকার হন ওই মহিলা। দুষ্কৃতীরা তার ছবি প্রকাশ্যে আনার হুমকি দেয়। এর জেরে আত্মহত্যা করেন তার বাবা। প্রত্যাশিতভাবেই সালমান খানের এই মন্তব্য তিনি মেনে নিতে পারেননি। ‘সুলতান’ ছবির প্রমোশনে এক সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে সালমান বলেছিলেন, ছবির প্রয়োজনে এত পরিশ্রম করতে হত যে, নিজেকে ধর্ষিতার মতো লাগত। তার এই মন্তব্যের পর সিনে-দুনিয়ার লোকজনই তীব্র সমালোচনা করেন। কেউ কেউ আবার সালমানের পাশে এসেও দাঁড়ান। মন্তব্যের প্রতিবাদে সালমান ভক্তদের কাছে যথেচ্ছ সমালোচিত হতে হয় গায়িকা সোনা মহাপাত্রকে।

তবে সিনেমহলে যে সমালোচনাই হোক না কেন, সালমানের এ মন্তব্যের প্রতিবাদই করেন বেশিরভাগ দেশবাসী। তবে এবার তা এগোল আইনি পথে। ওই মহিলার হয়ে তার আইনজীবী রজত কলসন এই আইনি নোটিস পাঠিয়েছেন সালমানকে। নোটিস পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অনাদায়ে আদালতের পথে হাঁটার কথাও জানিয়েছেন তিনি। তার মক্কেলের তরফে সালমানের বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল কেসে মামলা দায়ের করা হবে বলে হুঁশিয়ারিও দিয়ে রাখলেন ওই আইনজীবী।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts