শাহরুখের চেয়ে বড় দেশপ্রেমিক ভারতে নেই!

শাহরুখের চেয়ে বড় দেশপ্রেমিক ভারতে নেই!
Share Button

জীবনে নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে বলিউডে আজ ‘কিং খান’ উপাধি অর্জন করেছেন শাহরুখ খান। শুধুমাত্র সিনেমায় অভিনয় করে তিনি আজ ভারতীয়দের কাছে আউডল। কিন্তু গত বছরে বিজেপি সরকারের সমালোচনা করে পড়েছিলেন চরম রোষানলে! যে মানুষটি তার সিনেমা দেখে রোমান্টিকতার প্রথম পাঠ নিয়েছে, তার অভিনীত সিনেমার মধ্য দিয়ে দেশপ্রেম শিখেছে সেও রূপ পাল্টে তার বিরুদ্ধেই রাজপথে নামে! তাকে ভারত ছাড়তেও হুমকি দেয়া হয়। অথচ সবকিছু সহনশীলতার চাদরে ডেকে তিনি সবার উদ্দেশে বলে উঠেন ‘আমার চেয়ে বড় দেশপ্রেমিক ভারতে আর একটিও নেই’!

এমন কথা যিনি পুরো আত্মবিশ্বাস নিয়ে বলতে পারেন, তিনিইতো সাচ্চা দেশপ্রেমিক! আর এই দেশপ্রেমিক শাহরুখ খানকেই পাওয়া গেল ভারতের জনপ্রিয় টিভি শো ‘আপ কি আদালত’-এ। সম্প্রতি ইন্ডিয়া টিভিতে প্রচারিত শাহরুখের এই শো’টি ইতিমধ্যে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে। গত নভেম্বরে ‘অসহিষ্ণুতা’ নিয়ে শাহরুখের বিরুদ্ধে যেসব কথা উঠেছিল সেসব সম্পর্কেও খোলামেলা কথা বলতে দেখা গেছে এই অনুষ্ঠানে।

শাহরুখ তার বক্তব্যে নিজেকে ভারতের সবচেয়ে বড় দেশপ্রেমিক উল্লেখ করে বলেন, ‘মাঝেমাঝে আমার দুঃখ হয়। এমনকি আমি কাঁদিও, কারণ আমাকে নিজের দেশে বাস করেও প্রমাণ করতে হয় যে ‘আমিও দেশপ্রেমিক’! আমি সব সময় এই দেশের যুবক-তরুণদের বলি সহনশীল হতে, কঠোর পরিশ্রম করতে। আর তাহলেই দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব। আমি শেষবারের মত বলছি, আমি আর কখনোই এই কথার পুনরাবৃত্তি করবো না যে, আমার চেয়ে বড় দেশপ্রেমিক ভারতে নেই।’

এছাড়া ওই টিভি শো’তে নিজেকে একজন ভারতীয় বলে পৃথিবীতে গর্বিত বোধ করেন বলেও উল্লেখ করেন শাহরুখ। যে দেশের জন্য আমার বাবা তরুণ বয়েসে যুদ্ধ করেছেন, সেদেশ আমাদের সাথে কেন খারাপ আচরণ করবে? এমন প্রশ্নও তুলেন শাহরুখ।

নিজের দেশকে কেন অযথায় অসহিষ্ণু মনে করবেন শাহরুখ এমন যুক্তিও দেখিয়েছেন তিনি। এ সম্পর্কে শাহরুখ বলেন, আমার পরিবারই তো একটি ছোট্ট ভারত। আমার স্ত্রী গৌরি হিন্দু, আর আমি জন্মসূত্রে একজন মুসলমান। আর আমার তিন সন্তান আরিয়ান, সুহানা এবং আব্রাম এরা প্রত্যেকে আলাদা আলাদা ধর্ম পালন করে। তো আমার এই দেশকে কেন আমি ভিন্নকিছু বা অসহিষ্ণু মনে করবো?

এমনকি বর্তমান বিজেপি সরকার কিংবা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গেও কোনো দ্বিধা দ্বন্দ নেই, বরং প্রয়োজনে তাদেরকে সমর্থন করেন বলে জানিয়েছেন শাহরুখ। রজত শর্মার উপস্থাপনায় ‘আপ কি আদালত’-অনুষ্ঠানটিতে বিজেপি সরকার ও মোদি সম্পর্কে শাহরুখ বলেন, আমি একটা বিষয় এখানে পরিস্কার করে বলতে চাই যে, পুরো দেশ যখন গনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় একজনকে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব দেন সে যেই হোক আমাদের তাকে সমর্থন করা উচিত। কারণ আমাদের এই জাতিইতো তাকে সংখ্যাঘরিষ্ঠভাবে এই আসনটিতে বসিয়েছে। সুতরাং আমাদের উচিত দেশকে এগিয়ে নিতে তাকে(মোদিকে) সম্পূর্ণভাবে সমর্থন করা।

ভারতীয় জাতীয়তাবাদে পুষ্ট শাহরুখ নিজের বিশাল প্রত্যাশার কথা জানিয়ে ওই অনুষ্ঠানে বলেন, আমার জীবনে সবচেয়ে বড় আশা হচ্ছে অসংখ্য মানুষ আমার সিনেমা দেখে আনন্দ পাক। এবং একদিন ভারতে আমি সিনেমা বানাবো। এই জায়গায় আমি কট্টর জাতীয়তাবাদী। পৃথিবীর মানুষ আমার সিনেমা দেখবে, আর বলবে এই সিনেমা ভারতের!

উল্লেখ্য, গত বছরে সাকল্যে মুক্তি পেয়েছিল বলিউড কিং খান অভিনীত মাত্র একটি ছবি ‘দিলওয়ালে’। তারকাসমৃদ্ধ ওই ছবিটি বক্স অফিসে ব্যবসা করতে সমর্থ হলেও নুন্যতম প্রশংসা আদায় করে নিতে পারেনি সিনে-আলোচকদের। শাহরুখ অভিনীত এযাবৎ কালের সবচেয়ে বাজে ছবিগুলোর একটি দিলওয়ালে, এমন কথাও বলেছিলেন অনেকে। কিন্তু সব সমালোচনাকে পাশ কাটিয়ে ফের প্রেক্ষাগৃহে ফিরলেন শাহরুখ, এবার বীরদর্পে। সব প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ভারতসহ বিশ্বব্যাপী ১৫ এপ্রিল মুক্তি পেল চলতি বছরে বলিউড কিং শাহরুখ খান অভিনীত সিনেমা ‘ফ্যান’। আর মুক্তির প্রথম দিনেই ছবিটি যেমন সিনে-আলোচকদের প্রশংসায় ভাসছে, ঠিক তেমনি বক্স অফিসেও আয় করেছেন সাড়ে বিশ কোটি রুপি। আর দ্বিতীয় দিনে ছবিটি আয় করেছে ১৫.৩৪ কোটি রুপি। সব মিলিয়ে মুক্তির দু’দিনেই ছবিটি আয় করেছে ৩৪.৮৪ কোটি রুপি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts