শাহরুখ খান যে কারণে মহিলা বডিগার্ড রাখেন

shahrukh-khan
Share Button

সম্প্রতি শাহরুখ খানের চলন্ত গাড়ির উপরে উঠে পড়ে গুরুতর জখম হয়েছিলেন এক তরুণ চিত্রগ্রাহক। কারণ, গাড়ি থেকে পিছলে গিয়ে চাকার তলায় চলে গিয়েছিলেন ওই তরুণ। পরে শাহরুখ নিজেই তাঁকে হাসাপাতালে পাঠান এবং তাঁর চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করেন।

পুরুষদের মধ্যেই শাহরুখকে নিয়ে এমন উন্মাদনা। মহিলাদের ক্ষেত্রে এমন উত্তেজনাটা আরও চরমে থাকে। কারণ, শাহরুখের অনেক বেশি জনপ্রিয়তা মহিলা মহলে। যেখানেই যান, মহিলারাও হামলে পড়েন তাঁর উপরে। কেউ জড়িয়ে ধরেন। কেউ আরও কিছু করার চেষ্টায় থাকেন।

শাহরুখের মতে, এই মহিলাদের জন্য তাঁকে টিপ-টপ থাকতে হয়। বাইরে বেরলেই সুন্দর পোশাক যেমন পরতে হয় তেমনি সুগন্ধী ব্যবহার করতে হয়। মুখে যাতে গন্ধ না থাকে তার ব্যবস্থাও নিতে হয়। শাহরুখ জানিয়েছেন, তাঁর শরীর থেকে দু:গন্ধ বের হলে হয়ে গেল! মহিলারা কী বলবেন?

এমন মহিলা ফ্যানেদের জেরে নানা সময়ই বিপত্তিতে পড়তে হয় শাহরুখকে। কারণ, কারোর লিপস্টিক হয়তো লেগে গেল পোশাকে। আবার কোনও মহিলার লম্বা লম্বা নখের আঁচড় পড়ে গেল গালে, হাতে। চেহারার এমন ভয়ানক দশা হয় যে শাহরুখ নাকি গাড়িতে উঠে নিজেকেই চিনতে পারেন না। এমনকী, বাড়ি ফিরে বউ বা সন্তানদের লিপস্টিক বা নখের আঁচড়ের কি ব্যাখ্যা দেবেন বুঝতেও পারেন না।

মাঝখানে শাহরুখের পুরুষ বডিগার্ডরা মহিলাদের দূরে ঠেলার চেষ্টা করতেন কিন্তু, তা অত্যন্ত অস্বস্তিকর ঠেকত শাহরুখের কাছে।

তাই শাহরুখ এই ভয়ঙ্কর মহিলা ফ্যানেদের হাত থেকে বাঁচতে নাকি মহিলা বডিগার্ড রেখেছেন। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে শাহরুখ নিজেই এই গোপন কথা ফাঁস করেছেন। এই মহিলা বডিগার্ডের কাজ হল মহিলাদের লিপস্টিক আর নখের আঁচড় থেকে বাঁচানো। মহিলা ভক্তদের কাছে আসতে দিতে আপত্তি নেই শাহরুখের। কিন্তু, লিপস্টিক আj নখের আঁচড় নৈব নৈব চ!

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts