সুমাইয়া শিমু ‘জন্মান্ধ’!

সুমাইয়া শিমু
Share Button

সবসময় অভিনয়ে নিজেকে ভাঙার চেষ্টা করে থাকেন একজন অভিনয় শিল্পী। এক্ষেত্রে অভিনেত্রী সুমাইয়া শিমুও ব্যতিক্রম নন। সম্প্রতি নজরুল ইসলামের রচনা এবং চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালনায় ‘অন্ধকারের গান’ নামের একটি ব্যতিক্রমধর্মী গল্পের নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি।

নাটকের গল্পে দেখা যাবে, মধ্যবিত্ত একটি পরিবারের সবচেয়ে আনন্দময় মানুষটার নাম তিথি। তার কোনো দুঃখ নেই, হতাশা নেই, বেদনা নেই। সুন্দর একটা ফুলের গন্ধ পেলেই তার মন আনন্দে নেচে ওঠে, পাখির ডাকে নাচে প্রাণ, গান গায় আপন সুরে। তিথি সবচেয়ে সুখে থাকলেও এ পরিবারের প্রধান দুঃখ তিথিকে নিয়ে, কারণ তিনি জন্মান্ধ! নাটকে তিথির চরিত্রেই দেখা যাবে অভিনেত্রী সুমাইয়া শিমুকে।

মধ্যবিত্ত পরিবারের হাস্যোজ্জ্বল কিন্তু জন্মান্ধ একটি মেয়ের জীবনযাপন নিয়ে নির্মিত ধারাবাহিক নাটক এটি।

এতে অভিনয় প্রসঙ্গে শিমু বলেন, গল্প মূলত আমাকে এ নাটকে অভিনয় করতে বাধ্য করেছে। অন্ধ মেয়েটি নিজের জীবন সম্পর্কে বেশ সচেতন। নিজের মতো করে তার জীবন গড়ে নেয়ার চেষ্টা, গল্পের এ অংশটাই আমাকে বেশ মুগ্ধ করেছে। অন্ধ চরিত্রে প্রথমবারের মতো অভিনয় করেছি। চেষ্টা করেছি সবকিছু ফুটিয়ে তোলার। আশা করছি দর্শকরা পছন্দ করবেন।

নাটকটি একুশে টেলিভিশনে প্রতি রবি ও সোমবার রাত ১০টায় প্রচার হবে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment