ওয়াশিং মেশিনে ঢুকে শিশুর মৃত্যু

ওয়াশিং মেশিনে ঢুকে শিশুর মৃত্যু
Share Button

যুক্তরাষ্ট্রের আরকানসাসে অ্যালেক্সিস নামের ৩ বছরের একটি মেয়ে মায়ের ঘুমিয়ে থাকার সুযোগে ওয়াশিং মেশিনে ঢুকে পড়ায় স্বয়ংক্রিয় মেশিন চালু হয়ে মারা গেছে।

দক্ষিণ আরকানসাসে ছোট্ট শহর হ্যাম্পটনের বাড়িতে তিন বাচ্চা নিয়ে থাকেন ব্রুক। দুপুরে লাঞ্চের পর ঘুমের ওষুধ খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন তিনি। এই ফাঁকে তার তিন বছরের মেয়ে ওয়াশিং মেশিনের ভিতরে ঢুকে পড়ে।

শুধু তাই নয়, ভেতরে ঢুকে তার ঢাকনাও বন্ধ করে দিয়েছিল অ্যালেক্সিস। ঢাকনা বন্ধ করতেই স্বয়ংক্রিয় ওয়াশিং মেশিন চালু হয়ে যায়। গরম জল ঢুকতে শুরু করে। ভেতরে আটকে পড়া অ্যালেক্সিস গরম জল আর ঘুরন্ত ওয়াশিং হুইলের কবলে পড়ে চিৎকার করলেও সে আওয়াজ বাইরে আসেনি।

ঘুম ভেঙে উঠে তন্নতন্ন করে ঘরবাড়ি খুঁজেও অ্যালেক্সিসকে দেখতে পাননি ব্রুক। খোঁজ চলে পড়শিদের ফ্ল্যাটেও। এর পর ফের একপ্রস্থ বাড়িতে খোঁজার পর অ্যালেক্সিসকে ওয়াশিং মেশিনের ভেতরে দেখতে পায় ব্রুক। ঘটনার পর ব্রুককে গ্রেফতার করেছে আরকানসাস পুলিশ।

পুলিশি তদন্তে জানা গেছে, এর আগেও চরম গাফিলতির পরিচয় দিয়েছেন ব্রুক। গত বছর মাদকাসক্ত হয়ে সাত মাসের শিশুসন্তানকে গাড়িতে পিছনের সিটে বসিয়ে ড্রাইভিং করেছিলেন তিনি।

ব্রুকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। তিনি যে ঘুমের ওষুধ খেয়ে ঘটনার দিন ঘুমাচ্ছিলেন তার কোনও প্রেসক্রিপশন পাওয়া যায়নি ব্রুকের বাড়িতে।

এই মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে ছ’বছরের জেল হতে পারে সন্তানসম্ভবা ব্রুকের। মামলা চলাকালীন ব্রুকের দুই মেয়েকে রাখা হয়েছে আরকানসাস স্টেট ডিভিশন অব চিলড্রেন অ্যান্ড ফ্যামিলি সার্ভিসেস-এর হেফাজতে।

তথ্যসূত্র : আনন্দবাজার

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts