নিয়মিত গোসল করেন না স্বামী, তাই ডিভোর্স দিলেন স্ত্রী

স্বামী-স্ত্রী

সপ্তাহে একবার গোসল করেন স্বামী। ভালো করে দাড়িও কামায় না। দুর্গন্ধে বাড়িতে টেকা যায় না। এমন অভিযোগে স্বামীকে ডিভোর্স দিলেন স্ত্রী।

স্ত্রীর এমন অভিযোগ শুনে চোখ কপালে উঠেছিল বিচারকের। স্ত্রীর পরিষ্কার কথা স্বামীর সঙ্গে সংসার করা মোটেই সম্ভব নয়। ডিভোর্স চাই!

এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপালে। গত বছরই বিয়ে হয়েছিল তাদের। স্বামীর বয়স ২৫ আর স্ত্রীর বয়স ২২ বছর।

বেশ ভালোই চলছিল। তারপরই শুরু হয় ঝামেলা। স্ত্রীর কথায়, বিয়ের পর পর স্বামী বেশ ঝকঝকেই থাকত। সমস্যা শুরু হয় মাস ছয়েক আগে। গোসল করতে যেতে নাকি বেশ অনীহা ছিল। আর দাড়ি কামাতে গেলেই নাকি তার গায়ে জ্বর আসত।

সমাধান না মেলায়, শেষে ফ্যামিলি কোর্টে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা ঠুকে দেন স্ত্রী। বিচারক আরএন চাঁদ ছ’মাসের জন্য দু’জনকে আলাদা থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। এর মধ্যে কাউন্সেলিং চলবে দু’জনেরই।

কোর্ট কাউন্সিলর সাহিল অবস্তী জানিয়েছেন, স্বামী নিমরাজি হলেও স্ত্রী মোটেই আর থাকতে চাইছেন না একসঙ্গে। ওই তরুণ সিন্ধি সম্প্রদায়ের, কিন্তু তরুণী ব্রাহ্মণ। এই বিয়ে নিয়ে দুই পরিবারের কোনও আপত্তি ছিল না। এখনও নাকি তারা চাইছেন সব মিটে যাক। কিন্তু তরুণী তার সিদ্ধান্তে অনড়।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts