ভারতের এই সুন্দরী ‘আয়রন উওম্যান’ কে জানেন?

ভারতের ‘আয়রন উওম্যান’ ইয়াসমিন মনক

ভারতে পুরুষদের মধ্যে বডি বিল্ডিং নিয়ে উত্সাহের অন্ত নেই। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে অনেক ‘আয়রন ম্যান’। কিন্তু মহিলাদের মধ্যে বডি বিল্ডিং বিষয়টি ভারতে প্রায় নেই বললেই চলে।

কিন্তু মহিলারা যে কোনও ক্ষেত্রেই কম যান না সেটা ফের প্রমাণ করলেন ৩৬ বছরের ইয়াসমিন। কে এই ইয়াসমিন, আসুন দেখে নিই এক ঝলকে এই গ্যালারিতে।

হরিয়ানার গুরগাঁওয়ের মেয়ে ইয়াসমিন মনক। বডি বিল্ডিংয়ে সাধারণত পুরষদেরই আধিপত্য থাকে।
কিন্তু সেই প্রথা ভেঙে মহিলাদের এই প্রফেশনে পথ দেখিয়েছেন ইয়াসমিন। গত ১৭ বছর ধরে তিনি তিল তিল করে নিজেকে তৈরি করেছেন।

বডি বিল্ডিং অ্যান্ড ফিটনেস ফেডারেশন দ্বারা আয়োজিত প্রতিযোগিতায় তিনি মিস ইন্ডিয়া ২০১৬-র খেতাব জেতেন।

তাঁকে ভারতের ‘আয়রন উওম্যান’ বলা হয়।

ছোটবেলা থেকেই বডি বিল্ডিংয়ের শখ ছিল তাঁর। কিন্তু মেয়ে হওয়ার জন্য অনেক সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। কিন্তু প্রফেশনে আসতে পরিবার ও বন্ধুদের সাপোর্ট পেয়েছিলেন তিনি।

তিনি জানিয়েছেন, অনেকেই তাঁকে ওয়েটলিফ্টিংয়ের প্রফেশনে যেতে নিষেধ করেন। কিন্তু তাতে তিনি কর্ণপাত করেননি।

ইয়াসমিন বলেন, “প্রথা ভাঙতেই আমার ভাল লাগে। বুলেট চালাই। পাওয়ার লিফটিং করি। যে কোনও ছেলের থেকে অনেক বেশি মাসকিউলার। আর এটাই আমাকে আনন্দ দেয়।”

বর্তমানে গুরগাঁওয়ে তিনি একটি জিম ইনস্টিটিউট চালান। সেকানে প্রতি মাসে ৩০০ ছেলে ও মেয়ে প্রশিক্ষণ নিতে আসেন।

২০১৫-য় গ্ল্যাডর‌্যাগস মিসেস ইন্ডিয়া-র খেতাব জেতেন। পাশাপাশি, ওয়েটলিফটিংয়ে পুরুষদের অনেক রেকর্ড ভেঙেছেন।

এই প্রফেশনে তিনি গোল্ড মেডেলও জেতেন। আইএফবিবি আয়োজিত প্রতিযোগিতায় উইমেন ফিটনেস খেতাব জিতেছেন।

তিনি বলেন, “লোকে যখন প্রথমে আমার জিমে ইনস্টিটিউটে আসত, তাঁরা অবাক হয়ে যেত। বলত, মেয়ে হয়েও তুমি জিম ট্রেনার? প্রথমে তাংরা আমাকে বিশ্বাস করত না। কিন্তু তাঁদের কোনও দিন নিরাশ করিনি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts