সিনেমা হলে বিছানা-বালিশ-কম্বল : অন্ধকারে অনৈতিক কাজ!

সিনেমা হলে বিছানা-বালিশ-কম্বল
Share Button

সুসজ্জিত সিনেমা হল। সিনেমা দেখার জন্য দর্শকদের জন্য চেয়ারের পরিবর্তে আরামদায়ক বিছানা। চামড়ার এসব বিছানায় রয়েছে বালিশ ও কম্বলের ব্যবস্থা। এছাড়া অন্যান্য সুব্যবস্থা তো রয়েছেই। অশ্লীলতা প্রচারের দায়ে ইন্দোনেশিয়ার পালেমব্যাংয়ে অবস্থিত এমনই একটি সিনেমা হলের প্রদর্শনী বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

সিজিভি ভেলভেট ক্লাস সিনেমাস কর্তৃপক্ষ অনেক বছর ধরেই রাজধানী জাকার্তাসহ ইন্দোনেশিয়ার বিভিন্ন স্থানে এ রকম বিলাসবহুল সিনেমা হল চালিয়ে আসছিল। এতদিন এ বিষয়ে কোনো সমস্যার মুখোমুখি না হলেও সম্প্রতি দেশটির দক্ষিণ সুমাত্রান রাজধানী পালেমব্যাংয়ের ডেপুটি মেয়র সিনেমা হলে বিছানার ব্যবহার অত্যন্ত বাজে একটি পরিকল্পনা উল্লেখ করে সিনেমা হল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন।

সিনেমা হলটি অশ্লীলতা ও ব্যাভিচার ছড়াচ্ছে, স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছে এমন অভিযোগ পেয়ে ডেপুটি মেয়র ফিত্রিয়ান্তি অগাস্টিন্ডা গত সপ্তাহে সিজিভি ভেলভেট ক্লাস সিনেমা হল প্রদর্শন করেন। এরপর সিনেমা হলে বিছানা দেখে এ বিষয়ে আপত্তি করেন কর্তৃপক্ষ।
এ প্রসঙ্গে ফিত্রিয়ান্তি অগাস্টিন্ডা উপস্থিত স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘আমি এর একটি ব্যাখা চাই।’ তিনি আরো বলেন, ‘যদি পরিবেশ এমন হয়, তাহলে যারা সিনেমা দেখতে চায় না তারা এটি অন্য কাজে ব্যবহার করতে পারে।’
সিজিভি সিনেমা হলের ম্যানেজার কর্তৃপক্ষকে অনেকভাবেই বিষয়টি বোঝানোর চেষ্টা করেছেন। সিনেমা হল কর্তৃপক্ষের দাবি তারা শুধু প্রেমিক যুগলদের জন্যই সিনেমা হলটি নির্মাণ করেননি বরং এতে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সিনেমা দেখা যাবে। তবে কোনো কিছুতেই কাজ হয়নি।
ফিত্রিয়ান্তি অগাস্টিন্ডা নির্দেশ দিয়েছেন যতদিন পর্যন্ত সিনেমা হলের আসন হিসেবে বিছানার ব্যবহার পরিবর্তন করা না হবে ততদিন সিনেমা হল বন্ধ থাকবে। যদি এই আদেশ অমান্য করা হয় এবং এভাবেই সিনেমা প্রদর্শন করা হয় তাহলে তাদের ব্যবসার অনুমোদন বাতিল করা হবে।
সিনেমা হলের ম্যানেজার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন তারা নির্দেশনা মেনে যথাযত পরিবর্তনের ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts