একটা ব্রেকআপের জন্য আত্মহত্যা?

একটা ব্রেকআপের জন্য আত্মহত্যা?
Share Button

ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে সুইসাইড করেছেন মডেল সাবিরা হোসাইন। মৃত্যুর আগে ছাড়া তার ভিডিওবার্তাটা ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে। আজকের ফেসবুক যেন হয়ে উঠেছে চলন্ত শোকবই। সাবিরার বন্ধু-বান্ধব থেকে মিডিয়া সহকর্মীদের কেউই এ মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না। সাবিরাকে নিয়ে দেশজুড়েই চলছে আলোচনা।

তবে একজন মডেল হিসেবে মিডিয়া অঙ্গনে তাকে নিয়ে শোরগোলটা একটু বেশিই। ইতিমধ্যে অভিনয় শিল্পীদের মাঝে অনেকেই তার মৃত্যুতে সমবেদনা জানিয়েছেন। এ ইস্যুতে নারীদের আরও সাহসী হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া।

সাবিরার সুইসাইড প্রসঙ্গে তিনি ফেসবুকে লিখেছেন, ‘তোমার জীবনকে মূল্য দাও। সুইসাইড সব সমস্যার সমাধান নয়। জীবন কারো জন্য থেমে থাকে না। যে ছেলে তার জৈবিক চাহিদা মিটানোর জন্য তোমার সাথে প্রেম করতে আসবে তাকে জুতা মারতে না পারলেও লাত্থি মেরে চলে আসার মত সাহস প্রত্যেকটা মেয়ের থাকা উচিত। সত্যিকারে যে তোমাকে ভালবাসবে তার কাছে অন্য সব কিছুর আগে তোমার ভাল থাকা/খুশি থাকা প্রায়োরিটি পাবে। আর একটা ব্রেকআপের জন্য সুইসাইড?’

লেখায় নিজের ব্রেকআপের কথাও উল্লেখ্য করেছেন ফারিয়া। জানিয়েছেন, ‘আমার বিয়ের হল বুকিং হওয়ার পর ব্রেকআপ হয়েছে, আমি সেইটা নিয়ে বসে থাকলে আজকে ‘শবনম ফারিয়া’ হতে পারতাম না, তোমরা আমাকে এতো ভালবাসতে না, আমার জীবনটা আজকে এতটা সুন্দর হতো না। আর উপরে একজন অবশ্যই আছে যিনি শুধু তোমার জন্যই একজন মানুষকে এই দুনিয়ায় পাঠিয়েছে।’

উল্লেখ্য, নির্ঝর নামে এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের জের ধরেই আত্মহননের পথ বেছে নেন সাবিরা। তাদের দুজনের মধ্যে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক থাকলেও বিয়ের ব্যাপারে অসম্মতি ছিল নির্ঝরের পরিবারের। বিষয়টি মেনে নিতে না পেরে সাড়ে ৯ মিনিটের ভিডিও বার্তায় ঘোষণা দিয়ে আত্মহত্যা করেন সাবিরা। মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে রাজধানীর মিরপুরে রূপনগরের বাসায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, ময়নাতদন্ত শেষে সাবিরার লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্রেমিক রওনককে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts