আজকের জোকস, ২১ নভেম্বর ২০১৬

Share Button

জোকস০১ :   আইনজীবী!!!

এক লোক একবার পাশের বাড়ির মুরগী মেরে ফেলার মামলায় জেলে গেলো। লোকটা ছিলো একটু বলদা টাইপের, তাই সে ভয় পেলো যে তার এই মামলায় ফাঁসিও হয়ে যেতে পারে। লোকটা তার আইনজীবীকে বললো >>”দেখেন, যেমনে পারেন ফাঁসি ঠ্যাকাবেন। টাকা যত লাগে আপনেরে ব্যাবস্থা কইরা দিমু। আপনে খালি আমার যাবতজীবন কারাদন্ডের ব্যবস্থা করবেন।” আইনজীবী ওই লোকের কাছ থেকে বহু টাকা নিয়ে আইনি লড়াই করলো। রায়ের দিন সকালে আইনজীবী ওই লোকের সাথে জেলখানায় দেখা করতে গেলো। গিয়ে বললো >> “সুখবর আছে !!! আপনার যাবতজীবন কারাদন্ড করাইতে পারছি শেষ পর্যন্ত। অনেক কষ্ট হইছে এই রায় পরিবর্তন করাইতে।” লোকটা খুশি খুশি বললো >> “ভাই আপনে মহান। আপনে আমার জন্য অনেক কষ্ট করছেন। তা ভাই, রায় যে পরিবর্তন করাইলেন, ফাঁসির রায় দিয়া দিছিলো নাকি প্রথমে? আইনজীবী কাচুমাচু করে বললো >> “না রে ভাই, নিঃশর্ত মুক্তি দিয়া দিছিলো। এইজন্যই তো এত কষ্ট হইছে।”

 

জোকস০২ : হানিমুনের ছুটি!!!

ভার্সিটির এক ছেলে এক মেয়েকে টিজ করার উদ্দেশ্যে বলছে-

ছেলেঃ যাইবা নাকি কাজী অফিস ?

মেয়েঃ চল..

ছেলেঃ কই যামু ?
!
:
মেয়েঃ প্রিন্সিপালের কাছে,

ছেলেঃ ওমাহ্ ! আপু আপ্নের লগে কি একটু মশকরাও করা যাইবনা ?



|


মেয়েঃ আরে পাগল…হানিমুনের ছুটি নিতে হবে না ! !! !!! !

 

জোকস০৩ : কেরানি এবং ম্যানেজার!

ম্যানেজারঃ তুমি নাকি আলমারির চাবি আবারও হারিয়েছ?
কেরানিঃ জ্বী স্যার।
ম্যানেজারঃ তুমি চাবি হারাও বলেই, তোমাকে এবার দুটো চাবিই দিয়েছিলাম।






কেরানিঃ দুটো চাবি হারায়নি স্যার। একটা হারিয়েছে, আরেকটা আমি আগেই বুদ্ধি করে আলমারিতে ঢুকিয়ে রেখেছি।

 

জোকস০৪ : breaking news…..!!!

বল্টুর একবার বিজ্ঞানী হবার খুব শখ হলো!! তো সে একটা তেলাপোকা নিলো গবেষণার জন্য। সে তেলাপোকার একটা পা কাটল আর বলল
“হাঁটো”!! তেলাপোকাটি কষ্ট তার স্বাভাবিক নিয়মে জান বাঁচাতে হাঁটতে লাগলো। এরপর সে আরও একটি পা কাটল এবং বলল “হাঁটো”!!
তেলাপোকাটি এবারো অনেক কষ্টে হাঁটতে লাগলো। এভাবে বল্টু সব গুলো পা কাটল এবং বলল“হাঁটো”!! কিন্তু তেলাপোকাটি আর হাঁটতে পারল নাহ!! তারপর বল্টু ঘোষণা দিলঃ # breaking news..!!!
:
:
:
:
“সবগুলো পা কেটে ফেলার পর তেলাপোকা আর কানে শুনতে পায় না !!”

 

 জোকস০৫ ওটা টি ব্যাগ ছিল !!!

একদিন আবুল প্রচুর মদ খেয়ে এসে বউকে চা দিতে বলল, বউ চা দিতেই বউকে ধরে পেটাতে লাগল। প্রতিবেশীরা মারের আওয়াজ শুনে ছুটে এসে জিজ্ঞেস করল কি হয়েছে ?

মারছেনকেন ??
:
:
:
:
:
:
আবুল : এই হারামজাদী আমার চায়ে তাবিজ মিশিয়েছে-আমাকেবস করবে বলে
,,
,,
,,
বউ : ( কাঁদতে কাঁদতে ) ওটা টি ব্যাগ ছিল !!

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts