আপনার যৌনজীবন উত্তেজক করবে ৮ এসেনশিয়াল অয়েল!

রানি ক্লিওপেট্রা থেকে নুরজাহান। গোলাপের পাঁপড়ি ভেজা দুধে স্নান করার গল্প আমরা অনেক শুনেছি। ভাবছেন শুধুই রূপ উজ্জ্বল করতে এমনটা রোজ করতেন তাঁরা? এর রয়েছে আরও একটা দারুণ গুণ। উত্তেজক যৌনজীবন পেতেও সাহায্য করে গোলাপ। শুধু গোলাপই নয়, এই গুণ রয়েছে আরও বেশ কিছু এসেনশিয়াল অয়েলের। এই গ্যালারিতে দেখুন এমনই আট এসেনশিয়াল অয়েল।

* রোজ অয়েলঃ

জানেন কি ভালবাসা ও রোম্যান্সের দেবী অ্যাফ্রোডাইট তাঁর গুহা গোলাপের পাঁপড়ি দিয়ে সাজিয়ে রাখতেন? ক্লিওপেট্রাও রোজ গোলাপের পাঁপড়ি ভেজা জলে স্নান করতেন। সেক্সের সময় উৎকন্ঠা কমিয়ে ভালবাসা বাড়ায় গোলাপ তেল।

* জেসমিন অয়েলঃ

ফুলশয্যার রাতে মাথায় জুঁই ফুলের মালা লাগায় কেন জানেন? এই ফুল স্নায়ুর উদ্দীপনা বাড়াতে সাহায্য করে। সেক্সের সময় জেসমিন অয়েলের ব্যবহার আপনাকে উত্তেজিত করে তুলবে।

* ল্যাঙ্গ ল্যাঙ্গ অয়েলঃ

জুঁই ফুলের মতোই কাজ করে ল্যাঙ্গ ল্যাঙ্গ অয়েল। এই তেল আপনাকে নিমেষে খুশি করে দেয়। তুলোয় করে কয়েক ফোঁটা ল্যাঙ্গ ল্যাঙ্গ অয়েল মাথার বালিশের কাছে রেখে দিন।

* চন্দন তেলঃ

সুন্দর গন্ধের সঙ্গে ওষুধের গুণও রয়েছে চন্দন তেলের। তুলসি বা ল্যাভেন্ডার তেলের সঙ্গে এই তেল মিশিয়ে ব্যবহার করলে সম্পর্কে অন্তরঙ্গতা বাড়বে।

* কিউমিন অয়েলঃ

বাকি তেলের মতো অতটা জনপ্রিয় না হলেও যৌন উদ্দীপনা বাড়াতে ভাল কাজ করে জিরের তেল। এই তেলের বন্ধ্যাত্ব রোখার ক্ষমতা রয়েছে।

* ক্ল্যারি সেজ অয়েলঃ

বাকি তেলগুলোর থেকে একেবারেই আলাদা এই তেল। এই তেল আপনাকে রিল্যাক্স করে যৌন উদ্দীপনা বাড়াবে। তবে প্রেগন্যান্ট হতে চাইলে এই তেল এড়িয়ে চলুন।

* লবঙ্গ তেলঃ

শুধু যন্ত্রণা উপশমে নয়, স্টিমিউল্যান্ট হিসেবেও দারুণ কাজ করে ক্লোভ বাড অয়েল।

* পতচৌলি তেলঃ

পারফিউম তৈরির কাজে ব্যবহৃত হয় এই বিশেষ গুল্মের তেল। জারমেনিয়াম ও ল্যাভেন্ডার তেলের সঙ্গে মেশালে স্ট্রেস কাটিয়ে উদ্দীপনা বাড়াবে সম্পর্কে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

Related posts

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.