যে কারণে যৌন সঙ্গমের সময়ে মহিলার মৃত্যু…

সঙ্গমের সময়ে মহিলার মৃত্যু
Share Button

শারীরিক সম্পর্কে একটু বেশি উত্তেজনা আনতে নানারকম ওষুধ বা কৃত্রিম উপাদান ব্যবহার করার প্রবণতা দিন দিন বাড়ছে। বিশেষত পুরুষত্ব বাড়ানোর জন্য ছেলেদের মধ্যে এই প্রবণতা বেশি। অনেকের এনিয়ে ভ্রান্ত ধারণাও রয়েছে। কিন্তু এই প্রবণতা যে কতটা বিপজ্জনক হতে পারে, তা প্রমাণ হয়ে গেল এক মহিলার মৃত্যুতে। চূড়ান্ত উত্তেজনার মুহূর্তে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের জেরে মৃত্যু হয়েছে ওই মহিলার। আর এই ঘটনার জন্য দায়ী করা হয়েছে মৃতার পুরুষ সঙ্গীকেই।

৫০ বছর বয়সি নাইজেরীয় ব্যক্তি ফতাই বুসারির সঙ্গে কিছুদিন আগে আলাপ হয় সাদিয়াত আদিজুয়োঁ নামে এক মহিলার। দু’জনেই নাইজেরিয়ায় ঠিকা শ্রমিক হিসেবে রাস্তা পরিষ্কারের কাজ করত। আলাপের থেকেই দু’জনের ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। তৈরি হয় শারীরিক সম্পর্কও। কয়েকদিন আগে সাদিয়াতের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের আগে নিজের যৌনাঙ্গ বড় করতে একটি আয়ুর্বেদিক ওষুধ খায় ফতাই। একটি ব্রিটিশ সংবাদপত্রকে ওই ব্যক্তির আইনজীবী জানিয়েছেন, সঙ্গমের মাঝেই নিজের মহিলা সঙ্গী সাদিয়াতের মধ্যে অস্বাভাবিকতা লক্ষ্য করে ফতাই। তখন সে দেখে সাদিয়াতের গোপনাঙ্গ রক্তে ভেসে যাচ্ছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় ওই মহিলার। ওই ব্যক্তি তখন লোকজন ডেকে ঘটনার কথা সবাইকে জানায়।

 

মৃতার পুরুষ সঙ্গীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাকে নাইজেরিয়ার আগোড়ি জেলে বন্দি করে রাখা হয়েছে। যদিও, অভিযুক্তের আইনজীবীর দাবি, ইচ্ছাকৃতভাবে ওই মহিলাকে হত্যা করেনি ফতাই।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts