রোগ প্রতিরোধ করে যৌনতা

রোগ প্রতিরোধ করে যৌনতা
Share Button

এতকাল এমন ধারণাই পোষণ করে আসা হয়েছে যে, যৌনতা থেকেই ঘটতে পারে হাজারো সংক্রমণ। কিন্তু যৌনতাই যে অসংখ্য সংক্রমণের মহৌষধ হয়ে উঠতে পারে, তা সেভাবে জানা ছিল না কারোরই।

সম্প্রতি ইংল্যান্ডের স্টার্লিং বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষক-দল জানিয়েছে, ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করার ক্ষমতা রাখে যৌনতা। তাঁরা ৬০০০ জল-মাছির উপরে গবেষণা চালিয়ে এই সিদ্ধান্তে এসেছেন। জল-মাছিরা দু’ভাবে প্রজনন করে— তারা ক্লোন বানায় এবং যৌন জননও চালিয়ে যায়। গবেষকরা ক্লোনের ফলে জন্ম নেওয়া মাছিগুলিকে কিছু সংক্রামক পরজীবীর সংস্পর্শে রাখেন। মাছিগুলি দ্রুত সংক্রমিত হয়। কিন্তু, যৌন জননের ফলে জন্ম নেওয়া মাছিদের ওই পরজীবীদের সংস্পর্শ রাখা হলে দেখা যায়, তারা সহজে সংক্রমিত হচ্ছে না। অনেকে আবার সংক্রমণকে প্রতিরোধ করে বেঁচে আছে।

গবেষকদের মতে যৌন জনন-জাত মাছিগুলির সংক্রমণ প্রতিরোধ ক্ষমতা ক্লোন-জাতদের চাইতে অন্তত দ্বিগুণ বেশি। গবেষক স্টুয়ার্ট অল্ড জানিয়েছেন, এ থেকে অনুমান করাই যায়, প্রজননের স্বাভাবিক বিধি অর্থাৎ যৌনতা পরবর্তী প্রজন্মকে অনেক বাশি সুরক্ষিত রাখে।

কার্যত সন্তান জন্মের ক্ষেত্রে যৌনতার বিকল্প কিছু হতে পারে না, এটাই বিজ্ঞানীদের মত।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts