অনুষ্ঠানে পর্নো দেখার সময় ধরা পড়লেন মন্ত্রী!

স্মার্টফোনে পর্ন দেখলেই ৫ মহাবিপদ
Share Button

ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে একটি অনুষ্ঠানে বসে মোবাইল ফোনে পর্নো দেখার সময় ধরা পড়েছেন রাজ্য সরকারের প্রাথমিক ও উচ্চশিক্ষা-বিষয়ক মন্ত্রী তানভির সাইত।

গত বৃহস্পতিবার কর্ণাটকের রায়চূড়ে টিপু জয়ন্তীর একটি রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে গিয়ে মঞ্চে বসেই মোবাইল ফোনে পর্নো দেখেন ওই মন্ত্রী। এ ঘটনায় বিজেপি ওই মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছে। এ ছাড়া রাজনৈতিক দলসহ অনেকেই নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন।

দ্য হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা টেলিভিশন চ্যানেল কান্নাডা ও টিভি ৯-এ মন্ত্রীর পর্নো দেখার বিষয়টি দেখানো হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে, মন্ত্রী এক এক করে অর্ধনগ্ন নারীর ছবি দেখছেন।–প্রথমআলো।

তবে মন্ত্রী তানভির সাইত এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি দাবি করেন, মোবাইলে তিনি মায়সোরে টিপু জয়ন্তী অনুষ্ঠানের ছবি দেখার চেষ্টা করছিলেন। ঠিক এই সময়ে কেউ একজন তাঁর হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ওই ছবিগুলো পাঠিয়েছেন।

রাজ্য বিজেপির সভাপতি বি এস ইয়েদ্দ্যুরাপ্পা এক টুইট বার্তায় বলেছেন, পর্নো দেখার অভিযোগে অবিলম্বে তানভির সাইতকে বরখাস্ত করা উচিত।কর্ণাটক প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সভাপতি জি পরমেশ্বর বলেন, এ ব্যাপারে তিনি জানতেন না।

এর আগে ২০১২ সালে বিধানসভায় বসে পর্নো দেখার সময় ধরা পড়েছিলেন কর্ণাটক বিজেপির দুই মন্ত্রী লক্ষ্মণ সাভাদি ও সিসি পাতিল। তাঁদের এই পর্নো ক্লিপ সরবরাহ করেছিলেন আরেক মন্ত্রী কৃষ্ণ পালেমার। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাঁর তিনজনই পদ থেকে ইস্তফা দিতে বাধ্য হয়েছিলেন। এ ছাড়া ২০১৫ সালে ওডিশায় বিধানসভায় বসে পর্নো দেখার অভিযোগে বরখাস্ত করা হয় কংগ্রেস বিধায়ক নবকিশোর দাসকে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts