আজহারউদ্দিনের সঙ্গে এই রহস্যময়ী নারী কে?

আজহার ও শ্যারন

ক্রিকেটের শততম টেস্ট না খেলতে পারার আফশোস আজও মেটেনি আজহারউদ্দিনের। কিন্তু, মহিলাসঙ্গ নিয়ে তাঁর জীবনে কোনও আফশোস রয়েছে বলে মনে হয় না। ভারতীয় ক্রিকেটের তারকা আজ্জু-র প্রথম বিবাহ-সম্পর্কে ছেদ পড়াটা ছিল বড় ধরনের ধাক্কা। ১৯৮৭ সালে নওরিনকে বিয়ে করেছিলেন আজহার। সেই বিয়ের সুবাদে দুই ছেলের বাবাও হয়েছিলেন। ১৯৯৬ সালে নওরিনকে তালাক দিয়ে বলিউড অভিনেত্রী সঙ্গীতা বিজলানিকে আজহার বিয়ে করেছিলেন। ২০১০ সালে সঙ্গীতার সঙ্গে বিয়ের সম্পর্ক ভেঙে যায়। কারণ, ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার জ্বালা গুট্টার সঙ্গে আজহারের সম্পর্ক নিয়ে চাউর হয়েছিল। এই সম্পর্কেঘটিত বিতর্কের কালেই আজহারের ছোট ছেলে মোটারবাইক দুর্ঘটনায় মারা যায়। জ্বালা অবশ্য এই সম্পর্কের কথা উড়িয়ে দিয়েছিলেন।

সম্প্রতি, আজহারের সঙ্গে শ্যারন মেরি তলওয়ার বলে এক যুবতীর ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দু’জনকে ওয়ার্ল্ড ট্যুরে দেখা গিয়েছে। প্লেনের ভিতরে স্পেশাল বেডরুমেও তাঁদেরকে পাশাপাশি দেখা গিয়েছে। এমনকী, প্যারিসে আইফেল টাওয়ারের নীচেও আজহার ও শ্যারনের ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। এই সব ছবি এখন ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

 

 

বছর ৩২-এর শ্যারন আসলে আজহারের যোগাসন প্রশিক্ষক বলে জানা গিয়েছে। ‘ট্র্যান্সফরমেশনাল যোগা’-বিশেষজ্ঞ শ্যারন আদতে লস এঞ্জেলেসের মেয়ে। বর্তমানে তিনি দিল্লিতে থাকেন। নয়ডাতে বন্ধুর সঙ্গে ফ্যাশনেবল জামা-কাপড় তৈরির একটি সংস্থাও চালান শ্যারন। আমেরিকার নিক্কা নিউ ইয়র্ক থেকে শুরু করে এপ্রিল মে, স্টেলা ফরেস্ট, পেড্রো ডেল হিয়েরো-সহ একাধিক নামি সংস্থার জন্য জামা-কাপড় তৈরি করেন।

 

আজহারের যোগ প্রশিক্ষক হিসাবে তিনি যে কাজ করেন, তা স্বীকারও করেছেন শ্যারন। তবে, আজহারের সঙ্গে যেসব ছবি প্রকাশ পেয়েছে সেগুলি ‘মর্ফর্ড’ বলে দাবি করেছেন তিনি।

আজহারের সঙ্গে শ্যারনের এমন সব ছবি নিয়ে তৈরি হয়েছে জোর জল্পনা। দাবি করা হচ্ছে, শ্যারনকে বিয়ে করেছেন আজহার। নওরিন, সঙ্গীতার পরে শ্যারনই আজহারের তৃতীয় স্ত্রী। যদিও, এই বিয়ের কথা অস্বীকার করেছেন আজহার। তিনি জানিয়েছেন— সংবাদমাধ্যমের একাংশ এই ছবি নিয়ে নোংরা খেলা খেলছে।

 

বিশেষ সূত্রে খবর, এই ছবি প্রকাশের কয়েক দিন আগে আজহার মুম্বইয়ে তাঁর গাড়ির চালক জান মহম্মদের বাড়িতে যান। কারণ, জান কিছুদিন আগেই মারা গিয়েছেন। জানের পরিবারের কাছে শ্যারনকে নিজের স্ত্রী বলে নাকি আজহার পরিচয় দিয়েছিলেন।

এই খবর অবশ্য মানতে রাজি নন শ্যারন। তাঁর পরিষ্কার দাবি— ‘আজহার আমার বন্ধু। এরকম আরও বন্ধু আমার রয়েছে। কিন্তু, তার মানে এটা বোঝানোর দরকার নেই যে তাঁদের সঙ্গে আমার কী ধরনের বন্ধুত্ব আছে।’ গত আইপিএল ম্যাচে আজহারের সঙ্গে প্রথম শ্যারনকে প্রকাশ্যে দেখা গিয়েছিল।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts