ইরানে ভয়াবহ বন্যা, নিহত ৭০

resize-350x300x1x0image-164010-1554566154

ইরানে বন্যা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতি ঘটেছে। ভারি বৃষ্টিপাত ও অব্যাহত পাহাড়ি ঢলে গত কয়েক দিনে দেশটির বেশির ভাগ এলাকা তলিয়ে গেছে। নিহত হয়েছে ৭০ জন। প্রতিকূল আবহাওয়া ও বৃষ্টির পূর্বাভাসে শনিবারও বন্যার ঝুঁকিতে থাকা বহু গ্রাম ও শহর খালি করা হয়েছে।

গত ১৯ মার্চ শুরু হওয়া আকস্মিক বন্যায় দেশটির সব নদী ও খাল উপচে বন্যার পানি পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলোকে ডুবিয়ে দেয়। বন্যার পানির তোড়ে তিনটি পানি নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে গেলে পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়। ইরানের মোট ৩১ প্রদেশের মধ্যে অন্তত ২২ প্রদেশে মারাত্মক বন্যা দেখা দিয়েছে।

তেলসমৃদ্ধ খুজেস্তান প্রদেশের নদীর বাঁধ খুলে দেওয়ার পর শনিবার সুসানগার্দ শহরের ৭০টি গ্রামের বাসিন্দাদের নিরাপদ এলাকায় সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। সুসানগার্দ শহরের প্রায় ৫০ হাজার মানুষ বন্যা ঝুঁকিতে রয়েছেন। তেলসমৃদ্ধ এই অঞ্চলের জ্বালানি কোম্পানিগুলো পানি অপসারণের জন্য পাম্প ব্যবহার ও ত্রাণ তৎপরতায় সহায়তা করছে।

ইরানের সেনাবাহিনী দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় বন্যাকবলিত এলাকাগুলোর পানি দ্রুত কাস্পিয়ান সাগরের দিকে প্রবাহিত করার লক্ষ্যে শনিবার থেকে ভারি ড্রেজার মেশিন চালু করেছে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বন্যাকবলিতদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি জানান, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণের দায়িত্ব সরকারের। তার সরকার এ দায়িত্বপালন করবে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts