কংগ্রেসই ক্ষমতায় আসছে ভারতে

সোনিয়া গান্ধিকে হত্যার পরিকল্পনা ভেস্তে গেল!

২০০৪ সালে বিজেপির ভরাডুবির ইতিহাস তুলে ধরলেন কংগ্রেসের সাবেক সভানেত্রী সোনিয়া। বললেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অপরাজেয় ভাবার কোনো কারণ নেই। ২০০৪ সালের কথা মনে আছে তো? ওই সময় সবাই ভেবেছিলেন অটল বিহারি বাজপেয়িজিই ক্ষমতায় আসছেন। কিন্তু জিতেছিল কংগ্রেসই।’

বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশের রায়বেরলীতে মনোনয়ন জমা দেয়ার আগে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন ইউপিএ (ইউনাইটেড প্রগ্রেসিভ অ্যালায়েন্স) জোটের চেয়ারপারসন সোনিয়া গান্ধী। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দাবি, ‘হাওয়া তার সরকারের দিকেই রয়েছে।’

এনডিটিভি জানায়, ২০০৪ সালে সংবাদমাধ্যমের অধিকাংশেরই ধারণা ছিল, ক্ষমতায় আসছে বিজেপির নেতৃত্বে এনডিএ জোট। কিন্তু সেটা ঘটেনি। ক্ষমতায় এসেছিল কংগ্রেস। এদিন রায়বেরলীতে তার মনোনয়ন জমা দেয়ার আগে সাংবাদিকরা সোনিয়াকে প্রশ্ন করেন, ‘আপনি কি মনে করেন নরেন্দ্র মোদি অপরাজেয়?’

সোনিয়ার জবাব, ‘একদমই নয়। ২০০৪ সালের কথা ভুলে যাবেন না। সেবার বাজপেয়িজিকেও অপরাজেয় বলে মনে হয়েছিল। কিন্তু আমরাই জিতেছিলাম।’ এদিন সোনিয়ার সঙ্গে ছিলেন ছেলে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ও মেয়ে প্রিয়াংকা গান্ধী।

ছিলেন প্রিয়াংকার ছেলে রায়হান ভদ্র (১৮) ও মেয়ে মিরায়া ভদ্র (১৬)। মায়ের কথা শেষ হতেই রাহুল সাংবাদিকদের বলেন, ‘ভারতের রাজনীতিতে অনেকেই নিজেদের অপরাজেয় মনে করেছেন। তাদের মনে হয়েছে, তারা দেশের মানুষের চেয়েও উচ্চতায় অনেক বড় হয়ে গিয়েছেন। এমন ঘটনা আগেও ঘটেছে। কিন্তু পরে সবাই বুঝেছেন, মানুষের থেকে বড় কেউই নন।’

১৯৯৬ সালে প্রথম বিজেপির নেতৃত্বে এনডিএ সরকার ক্ষমতাসীন হয় কেন্দ্রে। বাজপেয়ির হাত ধরে। এরপর ১৯৯৮-৯৯ সালে সরকার গঠন করে বিজেপি। ২০০৪ সালে বিজেপিকে হারায় কংগ্রেস। বামপন্থী ও আরও কয়েকটি দলের সমর্থন নিয়ে ক্ষমতায় বসে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts