গণধর্ষণের পর কিশোরীকে চলন্ত ট্রেন থেকে নিক্ষেপ

rape_by teacher

 

ভারতের বিহার প্রদেশে গণধর্ষণের পর চলন্ত ট্রেন থেকে কিশোরীকে নিক্ষেপ করা হয়েছে। পাটনার একটি হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে গণধর্ষণের শিকার ১৬ বছরের ওই কিশোরী। প্রদেশের দক্ষিণের লক্ষ্মীসরাই জেলায় চলন্ত ট্রেনে গণধর্ষণের পর ওই কিশোরীকে ছয় ধর্ষক ছুড়ে ফেলেছিল। ধর্ষণে অভিযুক্ত সন্দেহে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। বাকিরা পলাতক রয়েছে।
বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নিতীশ কুমার বলেছেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এটা জঘন্য অপরাধ। যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। অপরাধীরা কোনো ছাড় পাবে না।
শুক্রবার বিকেলে বন্ধুর সঙ্গে দেখা করার জন্য বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর দশম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীকে অপহরণ করা হয়েছিল বলে পুলিশ জানিয়েছে। স্থানীয় একটি স্টেশন থেকে জোরপূর্বক ট্রেনে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করা হয় তাকে।
শনিবার রেললাইনে অচেতন অবস্থায় পড়ে ছিল ১৬ বছরের ওই কিশোরী। ট্রেন থেকে ফেলে দেয়ার কারণে মারাত্মকভাবে জখম হয়েছে সে। উদ্ধারের সময় প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছিল তার।

 
মেয়েটির পরিবার বলছে, ট্রেন থেকে তাদের মেয়েকে ফেলে দেয়ার অভিযোগ পুলিশ অস্বীকার করছে। স্থানীয় পুলিশ বলছে, মেয়েটি চলন্ত ট্রেন থেকে লাফ দিয়েছে। স্টেশনে তার খোঁজে স্বজনদের আসতে দেখে সে ট্রেন থেকে লাফিয়ে পড়েছে।
পরবর্তীতে পাটনার সরকারি হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে তাকে ভর্তিতে অন্তত ছয় ঘণ্টা দেরি হয় বলে মেয়েটির পরিবার দাবি করেছে। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, হাসপাতালের শয্যা কম থাকায় ভর্তিতে একটু দেরি হয়েছে।
মেয়েটি ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে মেডিক্যাল পরীক্ষা নিশ্চিত করেছে। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছে বলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন।
সূত্র : এনডিটিভি।

 

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts