গণধর্ষিতার প্রথম ধর্ষক হতে চেয়েছিলেন হবু প্রেসিডেন্ট!

president
Share Button

আর কয়েকদিন পরই নির্বাচন। সেই নির্বাচনে নির্বাচিত হবেন দেশের রাষ্টপতি। তাই শেষ বেলায় জোর কদমে চলছে প্রচার। কিন্তু প্রচারে একি কথা বললেন তিনি! আজ বাদে কাল যিনি দেশের রাষ্ট্রপতি হতে পারেন তিনি কিনা আফসোস করছেন এক সুন্দরীকে ধর্ষণ করতে না পারার জন্য! ছিঃ ছিঃ… এ কি লজ্জা।
৯ মে ফিলিপিন্সে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। সেই নির্বাচনের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী দাভাও সিটির মেয়র রড্রিগো দুতেরতে। সম্প্রতি মিন্দানাওয়ে একটি মিছিলে গিয়ে তিনি এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেন। ১৯৮৯ সালে জেলে যে দাঙ্গা বেধেছিল যেই সময় এক অস্ট্রেলীয় মিশনারি মহিলাকে অপহরণ করে গণধর্ষণ করা হয়েছিল। পরে তাকে খুনও করা হয়। সেই প্রসঙ্গ টেনে দেশের হবু প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমি এই ঘটনার চরম নিন্দা করি। কিন্তু মেয়েটি এত সুন্দর ছিল যে ওকে ধর্ষণের জন্য যারা লাইন দিয়েছিল তাদের মধ্যে প্রথম সুযোগটা আমার পাওয়া উচিত ছিল। সুযোগটা নষ্ট হল।’
মেয়রের এই মন্তব্যের ভিডিও ইউটিউবে দেখা যেতেই তোলপাড় দেশের রাজনীতি। সমালোচনায় মুখর বিরোধীরা। গণধর্ষণের মতো স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে মেয়রের এই উক্তি কেউ মেনে নিতে পারছেন না। এ প্রসঙ্গে তাঁকে ক্ষমা চাইতে বলা হলে তিনি তা করবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts