গোরক্ষকদের তাণ্ডব নিয়ে মুখ খুললেন মোদী

নরেন্দ্র মোদির মুখে আল্লাহর নাম! [ভিডিওসহ]

অবশেষে মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী। গোরক্ষকদের তাণ্ডবের বিরুদ্ধে দেশে ও বিদেশে যখন নাগরিক সমাজের লোকজন প্রতিবাদে সামিল হচ্ছেন, তখন সেই চাপ আর অগ্রাহ্য করতে পারলেন না নরেন্দ্র মোদী।

গুজরাতে গিয়ে গাঁধীজির সবরমতী আশ্রমের শতবার্ষিকী অনুষ্ঠানে সেই গাঁধীজিকে স্মরণ করেই গোরক্ষকদের বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী। গোরক্ষকদের তাণ্ডবের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেলেন, অন্যের উপর হিংসা আসলে জাতির জনকের আদর্শের বিরোধী।

সেই অনুষ্ঠানে মোদী বলেন, ‘‘মহাত্মা গাঁধী আমাদের দেখাতেন সত্যিকারের গোরক্ষক কে আর তিনি কখনই বেআইনি, স্বনিয়োজিত গোরক্ষকদের সমর্থন করতেন না।’’

গোরক্ষার নামে আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়াকেও দ্ব্যর্থহীন ভাষায় নিন্দা করেন তিনি। মোদী বলেন, ‘‘এই দেশে কারও নিজের হাতে আইন তুলে নেওয়ার অধিকার নেই। অহিংসাই আমাদের জীবনচর্চার পথ। গো-ভক্তির নামে মানুষ মারা কোনও ভাবেই মেনে নেওয়া যাবে না।’’

হিংসার সাহায্যে কোনও সমস্যার সমাধান সম্ভব নয় বলেও প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেন।

সম্প্রতি ইদের আগে হাফিজ জুনেইদ নামে এক মুসলিম কিশোরের হত্যা নিয়ে সরগরম সারা দেশ। সে ট্রেনে করে বাড়ি ফেরার সময় তাঁকে ‘দেশ-বিরোধী’ ও ‘গোমাংস খায়’ বলে উত্যক্ত করা হচ্ছিল। সেখান থেকেই ঘটনা হিংসাত্মক চেহারা নেয়। তার পরে গণপিটুনিতে মৃ্ত্যু হয় জুনেইদের। আহত হন তাঁর ভাই হাশিম ও শাকির।

মঙ্গলবারেই ঝাড়খণ্ডে এক মুসলিম ডেয়ারি মালিকের বাড়িঘর জ্বালিয়ে দিয়েছে গোরক্ষকরা।

এই ধরনের ঘটনা প্রথম নয়। এর আগেও গোরক্ষার নামে দেশের বিভিন্ন জায়গায় হিংসাত্মক ঘটনা ঘটিয়েছে গোরক্ষকরা।

এতদিন এ নিয়ে নীরব থাকলেও, অবশেষে মুখ খুলতে বাধ্য হলেন প্রধানমন্ত্রী। গোরক্ষকদের বার্তা দিতে শরণাপন্ন হলেন গাঁধীজির।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts