ট্রাম্পের সঙ্গে ডিনারের পর ভোল পাল্টেছেন রমনি

রিপাবলিকান দলের সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রার্থী মিট রমনি ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে নৈশভোজ করার পর ভোল পাল্টেছেন। রমনি বলেছেন, তার ক্রমবর্ধমান আশা জন্মেছে যে ট্রাম্প দেশকে অধিকতর উন্নত ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে নিতে পারবেন। খবর এএফপি ও দ্য গার্ডিয়ানের।

মঙ্গলবার নিউইয়র্কের একটি ফরাসি রেস্তোরাঁয় এ দুই রিপাবলিকান নেতা নৈশভোজে অংশ নেন। এ সময় দলটির চেয়ারম্যান রেইন্স প্রিবাসও ছিলেন। ১০ দিনের মধ্যে ট্রাম্পের সঙ্গে এটা ছিল রমনির দ্বিতীয় বৈঠক। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে রমনির নিয়োগ নিয়ে রিপাবলিকান শিবিরে বিভক্তির খবরের মধ্যে তারা বৈঠকে মিলিত হলেন।

নৈশভোজের পর ২০১২ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত রমনি বলেন, ‘জয়ী হওয়া সহজ নয়। ট্রাম্পের দর্শন শক্তিশালীভাবে আমেরিকান জনগণকে সম্পৃক্ত করেছে। আমার মনে হয় আপনারা দেখতে পাবেন যে চলতি শতাব্দীতেও বিশ্বকে নেতৃত্ব দেবেন আমেরিকা।’

তবে এবারের নির্বাচনী প্রচারণাকালে ট্রাম্পকে প্রতারক বলেছিলেন রমনি। আর ট্রাম্প বলেছিলেন, রমনি ছিলেন একজন দুর্বল প্রার্থী।

যে রেস্তোরাঁয় তারা নৈশভোজ করেন সেখানে ১৪৮ ডলারের নিচে খাওয়া যায় না। ট্রাম্প ও রমনির নৈশভোজের মেন্যু ছিল গার্লিকের স্যুপ, ব্যাঙের পা, কলিফ্লাওয়ার, গাজর, মাশরুমের সস আর চকোলেট কেক।

রমনি ও ট্রাম্পের নৈশভোজ নিয়ে সোস্যাল মিডিয়া ছিল সরগরম। ট্রাম্প হাসছেন আর গম্ভীর দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছেন রমনি- এমন ছবি ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হয়। অনেকে অনুমান করছেন, রমনি আসলে এখন এক অদ্ভুত পরিস্থিতির শিকার। একজন আবার ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘শয়তানের সঙ্গে চুক্তি’।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts