তুরস্কের ইস্তাম্বুলে নাইট ক্লাবে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ৩৫ [দেখুন ভিডিওতে]

তুরস্কের নাইট ক্লাবে বন্দুকধারীদের হামলা
Share Button

তুরস্কের ইস্তাম্বুলের একটি নাইটক্লাবে থার্টি ফার্স্ট নাইটে দুই বন্দুকধারীর হামলায় ৩৫ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন। শনিবার দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খবর এএফপি, আনাদুলো নিউজ ও সিএনএন টার্কের।

সান্তাক্লজের পোশাক পরে ওই নাইটক্লাবে ঢুকেছিল হামলাকারীরা।

টার্কি এনটিভির প্রতিবেদনে জানা যায়, ইংরেজি নতুন বছরের পার্টি শুরুর প্রাক্কালে ইস্তাম্বুলের অভিজাত এলাকা ওরটাকয়ের রেইনা নাইটক্লাবে দুই হামলাকারী সশস্ত্র হামলা চালায়।
এদিকে টার্কি এনটিভির খবরের ভিডিওতে রেইনা নাইটক্লাবে বেশ কয়েকটি এম্বুলেন্স ও পুলিশের গাড়ি ঢুকতে দেখা গেছে।

A nightclub where a gun attack took place during a New Year party
A nightclub where a gun attack took place during a New Year party

কয়েকদিন আগে তুরস্কের রাজধানীতে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতকে গুলি করে হত্যার পর নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে গোটা তুরস্ককে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছিল। কেবল ইস্তাম্বুল নগরীতেই দায়িত্ব পালন করছিলেন সতের হাজার পুলিশ। অথচ এর মধ্যেই নাইটক্লাবে হামলার ঘটনা ঘটল।

এ ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম ও ইস্তাম্বুলের গভর্নর ভাসিপ শাহীন এ ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা আখ্যায়িত করেছেন।

ইস্তাম্বুলের গভর্নর ভাসিপ শাহীন জানান, ঘটনাস্থলে ৫০০-৬০০ মানুষ সেখানে নববর্ষ উদযাপন করছিলেন।
এখন পর্যন্ত এ ঘটনার জন্য কেউ দায় স্বীকার না করলেও জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসকেই সন্দেহ করা হচ্ছে।

এদিকে ভয়াবহ এ সন্ত্রাসী হামলায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে। দেশটির ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের মুখপাত্র নিড প্রাইস বলেন, ন্যাটোর মিত্র হিসেবে আমরা তুরস্কের পাশে আছি। সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে পরাজিত করতে তাদের আমরা আমাদের অঙ্গিকার পুনর্ব্যক্ত করছি।

 

https://youtu.be/-ySSbPAyduA

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts