ধর্ষিতা ছাত্রীকে স্কুলের পরীক্ষায় অংশ নিতে তুলতে হবে মামলা!

ধর্ষিতা ছাত্রীর স্কুলে প্রবেশে বাধা

স্কুলের খণ্ডকালীন শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করায় এক ছাত্রীকে পরীক্ষায় বসতে দেয়া হচ্ছে না।

ধর্ষনের মানসিক অবসাদ কাটিয়ে ওই ছাত্রী পরীক্ষায় বসতে চাইলেও স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা তাকে উদ্দেশ্য করে কুরুচিকর মন্তব্য করেন। এমনকী, শিক্ষকের বিরুদ্ধে করা ধর্ষণের অভিযোগ না তুললে স্কুলে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলেও জানান তিনি।

ঘটনাটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সোনাপুর থানা এলাকার।

এ ঘটনায় ওই প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে ছাত্রীর পরিবার।

সোনারপুরের বাসিন্দা ওই কিশোরী কালিকাপুরের একটি স্কুলে নবম শ্রেণির ছাত্রী।

পুলিশ সূত্রের খবর, ওই স্কুলেরই আংশিক সময়ের শিক্ষক বাবুলবরণ ঘোষের কাছে আলাদা করে পড়ত সে। অভিযোগ, পরীক্ষায় ভাল নম্বর পাইয়ে দেওয়ার নাম করে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে বাবলু।

এ বিষয়ে মুখ খুললে ক্ষতি হবে বলেও ভয় দেখায় সে। অভিযোগ, গত ২৯ অক্টোবর ফের কিশোরীকে ধর্ষণ করে শিক্ষক। এরপরই অসুস্থ হয়ে পড়ে ওই ছাত্রী।

বিষয়টি জানার পর গত রবিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করে পরিবার। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে বাবলুকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বুধবার স্কুলে গিয়েছিলেন ওই ছাত্রীর অভিভাবকেরা। তাঁদের অভিযোগ, মেয়ে বার্ষিক পরীক্ষায় বসতে চায় বলে জানাতেই দুর্ব্যবহার শুরু করেন প্রধান শিক্ষিকা।

ছাত্রীর বাবার বক্তব্য, ‘‘প্রধান শিক্ষিকা বলেন, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে না নিলে মেয়েকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হবে না। ঢুকতে দেওয়া হবে না স্কুলেও। শিক্ষিকা হিসাবে তো ওঁর ছাত্রীর পাশে দাঁড়ানো উচিত। তার বদলে মেয়ের নামে নানা কুরুচিকর মন্তব্য করলেন।’’
এদিনের ঘটনা জানিয়ে ফের থানার দ্বারস্থ হয়েছে ওই ছাত্রীর পরিবার। জেলা পুলিশের এক অফিসার বলেন, ‘‘প্রধানশিক্ষিকার বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’’ অভিযুক্ত প্রধানশিক্ষিকার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রথমে নাম, পরিচয় জানতে চান। সাংবাদিক পরিচয় জানার পরই ‘রং নাম্বার’ বলে ফোন কেটে দেন তিনি।

যদিও স্কুলের পরিচালন কমিটির সভাপতি শান্তনু চক্রবর্তীর প্রতিক্রিয়া, ‘‘প্রধানশিক্ষিকা এরকম কিছু বলে থাকলে তা সঠিক কাজ করেননি। ছাত্রী যাতে পরীক্ষায় বসতে পারে, সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts