নরেন্দ্র মোদির মুখে আল্লাহর নাম! [ভিডিওসহ]

নরেন্দ্র মোদির মুখে আল্লাহর নাম! [ভিডিওসহ]

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ইসলাম হল বিশ্বাস ও শান্তির ধর্ম। আর এতে সুফিজমের অনেক বড় অবদান রয়েছে। খবর এনডিটিভির।

বৃহস্পতিবার ভারতের নয়াদিল্লিতে বিশ্ব সুফি ফোরামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘আল্লাহর ৯৯টি নাম আছে। এর মধ্যে কোনোটির সঙ্গে সহিংসতার সম্পর্ক নেই। প্রথম দুটি নামেই রয়েছে দয়া ও ক্ষমার অনন্য নজির। আল্লাহ পরম করুণাময় ও দয়ালু। যারা ধর্মের নামে সন্ত্রাসবাদ লেলিয়ে দেয়, তারা আসলে ধর্মবিরোধী।’

তিনি বলেন, ‘ইসলামের বৈচিত্র হল ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। কোরআনেই বলা আছে- কেউ যদি একজন মানুষকে আঘাত করে, তা হলে তা গোটা মানবতাকে আঘাত করার শামিল।’

সুফি নেতাদের সঙ্গে নরেন্দ্র মোদিভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সন্ত্রাসের নানা উদ্দেশ্য থাকে। যার পেছনে কোনো যুক্তিই খাটে না। আর সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ কোনো বিশেষ ধর্মের বিরুদ্ধে যুদ্ধ নয়, তা কখনও হতেও পারে না।’

শুধু ইসলাম নয়, চার দিনের এই সুফি ফোরামে এসে সর্বধর্ম সমন্বয় নিয়েও কথা বলেন মোদি।

তিনি বলেন, হিন্দু, মুসলিম, খ্রিস্টান, শিখ, জৈন, বৌদ্ধ, পারসি, আস্তিক, নাস্তিক- সবাই ভারতের অংশ।’

অনুষ্ঠানে সন্ত্রাসবাদের তীব্র নিন্দা করেন মোদি। পাকিস্তানের নাম উল্লেখ না করে তিনি বলেন, সীমান্তে সুফিবাদের চেতনা থাকলে, সন্ত্রাসবাদের হিংস্র শক্তি না থাকলে, এই অঞ্চল পৃথিবীর স্বর্গে পরিণত হতো। সুফি আমির খসরু (তের দশকের বিখ্যাত সুফি কবি) এ কথাই বলে গেছেন।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদ আমাদের বিভক্ত ও ধ্বংস করছে। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই হল মানববাদের মূল্যবোধের সঙ্গে অমানবিক শক্তির লড়াই।’

তিনি আরও বলেন, বর্তমান বিশ্বে মানবতাই সংকটের মুখে। এখন সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রবাদ সবচেয়ে ধ্বংসাত্মক হয়ে উঠেছে। এই সময়ে বিশ্বে সুফিবাদের দর্শনের প্রাসঙ্গিকতা রয়েছে। কারণ বিশ্বে যে দর্শনের অবদান সবচেয়ে মহান, তা হল সুফিবাদ।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসবাদের প্রসার ঘটছে। বাড়ছে হতাহতের সংখ্যা। গত বছর ৯০টির বেশি দেশে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে।

সন্ত্রাসবাদ জীবনযাত্রার ধরণ বদলে দিচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment